Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

ঋণ শোধ করতে ৫ হাজার টাকায় শিশু মেয়েকে বিক্রি করলো বাবা!

প্রতীকী ছবি

ঋণে জর্জরিত হয়ে আড়াই বছরের ছোট্ট শিশু মেয়েকে ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে নিজ বাবা বিক্রি করে দেয় বলে অভিযোগ উঠে। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই মেয়ের ঠাকুরদা রবীন্দ্র বারিক ছেলে রমেশের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করেন। এছাড়াও অভিযোগে লিটু জেনা নামে আরেক ব্যক্তির নাম রয়েছে। তিনিই শিশুটিকে কিনে নিয়েছিলেন। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ওড়িশার বিনঝড়পুরের সাহাদেবপুর গ্রামে।

পুলিশ জানিয়েছে, শিশুর বাবা রমেশ কপমা পাঁচ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল লিটু জেনার কাছ থেকে। দীর্ঘদিন ধরেই আর্থিক সংকটে ভুগছিল তার পরিবার। এ কারণে টাকা ফেরানোর জন্য শিশু মেয়েকে বিক্রি করার পরিকল্পনা করেন তিনি। এছাড়া লিটু মাঝে মাঝেই টাকার জন্য চাপ দিত। তাই শিশু মেয়েকে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়।

অ্যাডিশনাল ডিজি যশবন্ত জেঠওয়া এ ঘটনায় জানিয়েছেন, রমেশ সত্যিই লিটুর থেকে ৩ বা ৫ হাজার টাকা ধার নিয়েছিল। এরপর তার স্ত্রী তাকে ছেড়ে গেলে সে তার শ্বশুরকে জানায়, তার পক্ষে শিশু মেয়ের দায়িত্ব নেয়া সম্ভব নয়। লিটুর পরিবার রয়েছে, এ কারণে তার কাছেই মেয়েকে বিক্রি করে রমেশ। তবে টাকা শোধ করার জন্য মেয়েকে বিক্রি করেছিলেন কিনা তা এখনও নিশ্চিত নয়।

জানা গেছে, শিশুটিকে উদ্ধার করে চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটিতে রাখা হয়েছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখে পদক্ষেপ নিতে চায় পুলিশ। শিশুর ঠাকুরদা জানিয়েছেন, অভিযোগ করার পর থানায় গিয়ে বার বার খোঁজ নিয়েছেন শিশুর। শিশুকে শিগগিরই ফেরত দেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। সূত্র : নিউজ এইটটিন

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS