logo
  • ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭

যৌন সম্পর্কের কথা বলে ১৮ নারীকে খুন

16 women, killed, talking, about sex
যৌন সম্পর্কের কথা বলে ১৮ নারীকে খুন

মানুষের ক্ষোভ মাঝে মাঝে একজন মানুষ নিজেকে যতটুকু বিপদে ফেলেন, তার চেয়ে অন্যকে বেশি বিপদে ফেলানোর চেষ্টা করেন। তেমনি ভয়ঙ্কর কিছু ঘটনা আছে যা থেকে মানুষ ফিরিয়ে আসতে পারেন না। সম্প্রতি নিজের বোনসহ আরও দুজনকে খুন করে ‘বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ সিরিয়াল কিলার’ হিসেবে আখ্যা পেয়েছেন ভারতের বিহারের মুশাহার গ্রামের বাসিন্দা অমরজিৎ।

এবার ভারতের হায়দরাবাদে ২১ বছর বয়সী এক তরুণ বিয়ে করলেও তার প্রথম স্ত্রী অন্য তরুণের সঙ্গে পরোকিয়া সম্পর্কে জড়ালে সংসার ছেড়ে চলে যান। সেখান থেকেই নারীদের প্রতি ক্ষোভ ও ঘৃণার জন্ম নেয় ২১ বছর বয়সী তরুণের। আর এই ক্ষোভ ও ঘৃণা থেকে একে একে ১৮ নারীকে টাকার বিনিময়ে যৌন সম্পর্কের সম্মতিতে হত্যা করেন। নৃশংসভাবে তাদের খুন করার পর নারীদের কাছে থাকা দামী জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যান।

ভারতীয় গণমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি। তবে এটি কোনও সিনেমার গল্প বা দৃশ নয়। বাস্তবে ২১ বছর বয়সি তরুণ ১৮ নারীকে হত্যা করেছেন। ‘বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ সিরিয়াল কিলারের মতোই তিনিও সিরিয়াল কিলারের তালিকায় নাম লেখেছে। ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সব মিলিয়ে তার বিরুদ্ধে ২১টি মামলা হয়েছে।

অভিযুক্ত এই সিরিয়াল কিলার পেশায় একজন শ্রমিক। সম্প্রতি দুই নারী খুনের মামলায় তাকে খুঁজছিল পুলিশ। তদন্তে নেমে অবশেষে সন্ধান মেলে তার। সিটি পুলিশ টাস্ক ফোর্স এবং রাচাকোন্ডা কমিশনারেটের পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তিকে।

জানা গেছে, ২০০৩ সালে অপরাধের দুনিয়ায় পা রাখে অভিযুক্ত। তার লক্ষ্যই থাকত একা থাকা নারীদের দিকে। তাদের টাকার বিনিময়ে যৌনতার প্রস্তাব দিত সে। ভুক্তভুগীরা বুঝতেও পারতেন না কোন ফাঁদে পা দিতে চলেছেন তারা। পুলিশ জানতে পেরেছে, খুনের আগে সব ক্ষেত্রেই ওই নারীদের সঙ্গে বসে মদ খেত অভিযুক্ত। তারপর সুযোগ বুঝে ঝাঁপিয়ে পড়ত তাদের উপরে। নৃশংসভাবে তাদের খুন করার পরে ওই নারীর কাছে থাকা দামী জিনিসপত্র নিয়ে চম্পট দিত সে।

একুশটি মামলা রয়েছে অভিযুক্তর বিরুদ্ধে। এরমধ্যে ১৮টি খুনের ও অন্য দুটি সম্পত্তিগত অপরাধ। এছাড়াও একবার পুলিশের হেফাজত থেকে পালিয়ে যাওয়ার কারণেও একটি মামলা রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তাকে জেরা করা শুরু করেছে পুলিশ।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS