logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭

টিকার কথা বলে খালি সিরিঞ্জ পুশ করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা!

টিকার কথা বলে খালি সিরিঞ্জ পুশ করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা!

করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর দিকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নানা গুজবের কথা শোনা যায়। করোনা প্রতিরোধে গরুর মূত্রপান করাসহ নানান ধরনের চিকিৎসা ব্যবস্থা উল্লেখ করা হয়। পরবর্তীতে ধীরে ধীরে এসব গুজব মানুষের কাছে মিথ্যা প্রমাণ হয়। তবে এবার করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া নিয়ে ব্রাজিলে স্বাস্থ্যকর্মীরা মিথ্যাচার করা শুরু করেছে।

ব্রাজিলে করোনাভাইরাসের টিকার কথা বলে খালি সিরিঞ্জ পুশ করার অভিযোগ উঠেছে স্বাস্থ্যকর্মীদের বিরুদ্ধে। তবে এই অভিযোগের জন্য তদন্তে নেমেছে ব্রাজিলের পুলিশ।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে এটিকে ‘বাতাসের টিকা’ বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে। দেশটির অন্তত চারটি রাজ্যে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়। এর মাধ্যমে ব্রাজিলে টিকাদান কর্মসূচিতে সমন্বয়হীনতার চিত্র উঠে এসেছে। এর আগে করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা নিয়ে চরম অবহেলার বিষয়টিও সমালোচিত হয়। খবর দ্যা গার্ডিয়ানের।

টিকা কেলেঙ্কারি নিয়ে বুধবার তদন্ত শুরুর ঘোষণা দিয়েছে ব্রাজিলের পুলিশ। তাদের ধারণা, নার্সরা হয়তো টিকা বিরোধী ষড়যন্ত্র তত্ত্বে বিশ্বাসী বা কালোবাজারে এ টিকা বিক্রি করছে তারা।

রিও অঙ্গরাজ্যের পুলিশ জানিয়েছে, যদি টিকা আত্মসাতের সঙ্গে কেউ জড়িত থাকে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হবে। এমন ঘটনা প্রমাণিত হয়ে ১২ বছর পর্যন্ত জেল হতে পারে।

২০১১ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত টিকাদান কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত এপিডেমিয়োলোজিস্ট কারলা ডমিংগস বলেন, ‘শুরুতে এটাকে বিচ্ছিন্ন ঘটনা মনে হলেও উদ্বেগজনক হচ্ছে, অনেক জায়গায় এ ধরনের ঘটনা ঘটছে।’

তিনি বলেন, হয় এসব স্বাস্থ্যকর্মীদের ঠিকমতো প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়নি বা তারা কোনো খারাপ বিশ্বাসের সঙ্গে জড়িত। উভয় ক্ষেত্রেই এটি অগ্রহণযোগ্য।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS