নামাজের জন্য দ্বার খুললো জার্মানির একটি চার্চ

প্রকাশ | ২৩ মে ২০২০, ১৫:৫৩ | আপডেট: ২৩ মে ২০২০, ১৬:৫০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ডেইলি সাবাহ থেকে নেয়া

জার্মানির বার্লিনের একটি চার্চ মুসলিমদের জুমআর নামাজের জন্য তাদের দ্বার খুলে দিয়েছে।করোনাভাইরাসের কারণে দেশটিতে সামাজিক দূরত্বের ফলে অনেকেই মসজিদে নামাজ পড়তে পারছে না, তাই তাদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে ওই চার্চটি।খবর ডেইলি সাবাহর।

বার্লিনের দার আসসালাম মসজিদে প্রতি শুক্রবার কয়েকশ মুসল্লি নামাজ আদায় করে। কিন্তু করোনা মোকাবিলায় জার্মান সরকারের বিধিনিষেধের কারণে এখন মাত্র ৫০ জন মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারছেন।

এমন পরিস্থিতিতে এগিয়ে এসেছে পার্শ্ববর্তী মার্থা লুথেরান চার্চ। পবিত্র রমজান মাসে মুসলিমদের জুমআর নামাজ আদায়ের ব্যবস্থা করে দিয়েছে তারা। এই চার্চে আরবি ও জার্মান ভাষায় জুমআর খুতবা হচ্ছে।

মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ তাহা সাবরি বলেন, এই সঙ্কটের মধ্যে এটা দারুণ একটা ব্যাপার এবং রমজানে আনন্দ বয়ে নিয়ে এসেছে। এই মহামারি আমাদের একটি কমিউনিটিতে রূপান্তর করেছে। সঙ্কট মানুষজনকে একসঙ্গে নিয়ে আসে।

চার্চে ধর্মযাজক মনিকা ম্যাথিয়াস বলেন, মুসলিমদের আজানের শব্দ তাকে নাড়া দিয়েছে।তিনি বলেন, আমি খুতবায় অংশ নিয়েছি।আমি জার্মান ভাষায় খুতবাও দিয়েছি।আমি শুধু ইয়েস, ইয়েস বলতে পেরেছি কারণ আমাদের সবার উদ্বেগের জায়গা একটাই এবং আমরা আপনাদের কাছ থেকে শিখতে চাই। এবং একে অপরের ব্যাপারে এ ধরনের অনুভব করা খুবই সুন্দর একটা অনুভূতি।

করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন থাকার পর গত ৪ মে ধর্মীয় স্থানগুলো খুলে দেয় জার্মানির সরকার।তবে ধর্মীয় রীতিনীতি পালনের সময় ইবাদতকারীদের অবশ্যই একে অপরের থেকে দেড় মিটার (প্রায় ৫ ফুট) দূরত্ব বজায় রাখার দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।