logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বাংলাদেশ-ভারতে ছড়িয়েছে দুর্বল করোনাভাইরাস, দাবি মার্কিন সংস্থার

coronavirus type in Bangladesh-india weaker than other countries
সংগৃহীত
প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে পুরো বিশ্ব কার্যত অচল। প্রতিদিন বিশ্বব্যাপী মৃত্যু হচ্ছে হাজার হাজার মানুষের। তবে গবেষকরা বলছেন, পৃথিবীর সব প্রান্তে করোনা সমান বিপজ্জনক নয়। কোথাও এর মারণ ক্ষমতা বেশি, কোথাও কম। বিশ্বের অন্য এলাকার তুলনায় করোনার ক্ষমতা নাকি বাংলাদেশ তথা দক্ষিণ এশিয়ায় অনেকটাই কম। যুক্তরাষ্ট্রের ‘ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস’ এমনটাই দাবি করেছে।

মার্কিন এই গবেষেণা সংস্থার মতে, বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এবং দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ায় করোনাভাইরাসের যে সাব-টাইপ ছড়িয়েছে সেটি ইউরোপ এবং অন্যান্য দেশের মতো মারাত্মক নয়। এর মারণ ক্ষমতা করোনার সব টাইপের তুলনায় অনেকটাই কম। 

মার্কিন সংস্থাটির গবেষকরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে করোনার নমুনা সংগ্রহ করে তা নিয়ে গবেষণা চালায়। নিজেদের গবেষণার ওপর ভিত্তি করে করোনাকে তিনটি উপজাতিতে ভাগ করেছেন তারা। কভিড-19 এর এই তিনটি বিভাগকে এ, বি ও সি বিভাগে ভাগ করা হয়েছে এ এবং সি’র তুলনায় বি অনেকটাই দুর্বল এবং এর মারণ ক্ষমতা কম। মার্কিন গবেষণা সংস্থাটি বলছে, ভারত দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিন পশ্চিম এশিয়ায় এই ভাইরাসের বি উপজাতিটিই ছড়িয়েছে।

ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সেস বলছে, যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশে মূলত এ এবং সি ভাইরাসের প্রকোপ দেখা গেছে। ফলে এসব অঞ্চলে সংক্রমণ এবং মৃত্যু বেশি। এর বিপরীতে অনেকটা ভালো অবস্থায় রয়েছে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এবং দক্ষিণ পশ্চিম এশিয়া। তবে ভাইরাসের স্ট্রেন দুর্বল বলে নিশ্চিন্ত হওয়ার জায়গা নেই। তাই কোনোভাবেই  সামাজিক দুরত্বের বিধি লঙ্ঘন করা যাবে না বলে জানাচ্ছে সংস্থাটি। 

RTVPLUS