logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত জাপানে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৩:২৭
Japan is the second most affected by the Corona virus, rtvonline
বিনামূল্যে মুখোশ ও স্যানিটাইজারের জন্য চীনের বেইজিংয়ে একটি ফার্মেসির বাইরে লাইন (দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস)
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে এখন পর্যন্ত ৮১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা ২০০২-০৩ সালে ছড়িয়ে পড়া সার্স ভাইরাসের মৃতের সংখ্যার চেয়ে বেশি।

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন রোববার জানিয়েছে, সবমিলিয়ে দেশটিতে ৩৭ হাজার ১৯৮ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়ে দুই হাজার ৬৫৬ জন। মারা যাওয়া ও আক্রান্ত হওয়া এসব ব্যক্তির অধিকাংশই হুবেই প্রদেশের বাসিন্দা।

চীন থেকেই ছড়িয়েছিল এই সার্স ভাইরাস। মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে ৭৭৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে নতুন করোনাভাইরাসে চীনে মূল ভূখণ্ডের বাইরে কেবল দুজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। একজন হংকংয়ে ও একজন ফিলিপাইনে।

এদিকে সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আক্রান্তের সঙ্গে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটছে এই করোনাভাইরাসে। ইতোমধ্যেই দুই ডজনের বেশি দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান মিলেছে। তবে সাম্প্রতিক দিনগুলোতে চীনে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের সংখ্যা স্থিতিশীল হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তবে উহানের পরিস্থিতি এখনও খুব খারাপ বলে মন্তব্য করেছে সংস্থাটি।

অন্যদিকে চীনের পর করোনাভাইরাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত দেশ হচ্ছে জাপান। ওই দেশে অন্তত ৮৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ইয়োকোহামা বন্দরে যাত্রীবাহী প্রমোদতরীতে কোয়ারাইন্টানে রয়েছেন ৬০ জনের বেশি। এরপরের অবস্থানে রয়েছে সিঙ্গাপুর। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪০ জন। এছাড়া থাইল্যান্ডে ৩২ ও হংকংয়ে আক্রান্ত রয়েছেন ২৬ জন।

এসব দেশ ছাড়াও দক্ষিণ কোরিয়ায় ২৫, তাইওয়ানে ১৭, মালয়েশিয়ায় ১৬, অস্ট্রেলিয়ায় ১৫, জার্মানিতে ১৩ ও ভিয়েতনামে ১৩ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ : করোনাভাইরাস

আরও
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়