গাম্বিয়া প্রকৃত চালিকাশক্তি নয়: মিয়ানমারের আইনজীবী স্টেকার

প্রকাশ | ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৩:৫৫

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
সংগৃহীত

নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগ শহরে অবস্থিত ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) চলমান রোহিঙ্গা গণহত্যার মামলার শুনানিতে মিয়ানমারের পক্ষের আইনজীবী ক্রিস্টোফার স্টেকার বলেছেন, গাম্বিয়া প্রকৃত চালিকাশক্তি নয়। খবর যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের।

থার্টি নাইন এসেক্স চ্যাম্বার্সের লন্ডন ভিত্তিক এই আইনজীবী বলেন, রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগ এনে মিয়ানমারের বিচার দাবি করছে গাম্বিয়া। তবে এই দাবির পেছনে প্রকৃত চালিকাশক্তি দেশটি নয়। এই দাবি অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি)।

মিয়ানমারের পক্ষের আরেক আইনজীবী উইলিয়াম স্কাবাস বলেন, বাদী পক্ষ রাখাইনে দশ হাজার জন নিহত হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছে। যদি দশ হাজার মানুষের মৃত্যুর বিষয়টি সত্যিও হয়, তবুও এটি গণহত্যা নয়। কারণ অঞ্চলটিতে মোট দশ লাখের বেশি মানুষের বাস।

গত ১১ নভেম্বর আইসিজে-তে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগ এনে দেশটির বিরুদ্ধে মামলা করে গাম্বিয়া। মঙ্গলবার এই মামলার তিন দিনের শুনানি শুরু হয়েছে। এদিন আইসিজে-তে নিজেদের বক্তব্য উপস্থাপন করে গাম্বিয়া।

মিয়ানমার বুধবার নিজেদের বক্তব্য উপস্থাপন করে। দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগ অস্বীকার করেন। অবশ্য তিনি সহিংসতার কথা স্বীকার করেন। কিন্তু তার মতে, এটিকে কোনোভাবেই গণহত্যা বলা যায় না।

তিনি বলেন, রাখাইনের অসম্পূর্ণ চিত্র উপস্থাপন করেছে গাম্বিয়া। রাখাইনে হত্যা ও সহিংসতায় জড়িত সৈন্য ও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত ও বিচার হচ্ছে। তিনি বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে হওয়া চুক্তির কথাও উল্লেখ করেন।

কে/এমকে