logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬

ভারতে স্বপ্নে স্বামীকে ভালোবেসে গর্ভবতী স্ত্রী!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ১৫:৫০ | আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০১৯, ১৬:৩১
গর্ভবতী নারী
প্রতীকী ছবি
প্রায়ই বিভিন্ন ধরনের অদ্ভুত ঘটনার কথা শোনা যায়। তবে ভারতে এমন এক ঘটনা ঘটেছে তা শুনলে চোখ কপালে উঠবে। সেখানকার বিহার রাজ্যের এক নারী দাবি করেছেন, স্বপ্নের ভেতর স্বামীকে ভালোবেসে গর্ভবতী হয়েছেন তিনি।

ওই নারীর স্বামী কলকাতায় কাজ করেন। কিন্তু সাত মাস পর বাড়ি ফিরে জানতে পারেন তার স্ত্রী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আর তাতে বেঁধেছে যত ঝামেলা।

জানা গেছে, ওই দম্পতির বাড়ি বিহারের ভাগলপুর জেলার জগদীশপুরে। পাঁচ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়েছিল। বর্তমানে এই দম্পতির দেড় বছরের একটি মেয়েও আছে। এমনিতে সবকিছু ঠিকই ছিল। কিন্তু কিছুদিন আগে ওই নারীর ননদ লক্ষ্য করেন যে তার ভাবী অন্তঃসত্ত্বা।

তার ভাই কাজের সূত্রে সাত মাস ধরে কলকাতায় থাকার পরেও এই ঘটনা কী করে ঘটতে পারে তাই বুঝতে পারছিলেন তিনি। পরে তার ভাই বাড়ি ফিরলে সবকিছু খুলে বলেন। সেই কথা শুনে স্ত্রীকে সন্তানের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করে ওই ব্যক্তি।

তখন ওই ব্যক্তির স্ত্রী জানায়, তিনি ভালবেসে তাকে স্বপ্নে দেখেছিলেন। তার ফলেই গর্ভবতী হয়ে পড়েছেন তিনি। এই কথা শুনে হতবাক হয়ে যায় তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরে তারা এ ঘটনা স্থানীয় পঞ্চায়েতকে জানায়।

কিন্তু তাতেও কোনও কাজ না হওয়ায় বিহারের ডিআইজি বিকাশ বৈভবের সঙ্গে দেখা করে ওই ব্যক্তির বোন। তারপর ডাক্তাররা পরীক্ষা করে দেখা যায়, গর্ভে থাকা শিশুটির বয়স হয়েছে ৭৮ দিন অর্থাৎ তিন মাসের চেয়ে ১২ দিন কম। সন্তানটি কার তা জানার জন্য যুবতীটিকে চাপ দিতে শুরু করে তার স্বামী।

কিন্তু তখনও মুখ খুলতে চায়নি ওই নারী। এরপর পুরো পরিবারের লোকজন চাপ সৃষ্টি করলে, ওই নারী হুমকি দিতে শুরু করে। ওই নারী বলে, তোমরা যদি আমাকে এই বাড়িতে রাখতে চাও তো ভালো। না হলে তোমাদের মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেব।

যদিও এতে কোনও কাজ হয়নি। ওই নারীর হুমকি সত্ত্বেও তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা। তাদের অভিযোগ, পূর্ব পরিচিত এক যুবকের সঙ্গে পরকীয়াতে জড়িয়ে পড়েই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে ওই নারী।

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়