হিন্দু শেষ্ঠত্ববাদ কাশ্মীরের পর আশপাশের অঞ্চলগুলোতে ছড়াবে: ইমরান

প্রকাশ | ১১ আগস্ট ২০১৯, ২১:৩৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ছবি: পাকিস্তানের গণমাধ্যম ডন

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, ভারত সরকারের অধিকৃত কাশ্মীর সংক্রান্ত নীতি দেশটির হিন্দু জাতীয়তাবাদী রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) দলের আদর্শের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ।

তার মতে, দেশটির ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মূল সংগঠন হিসেবে পরিচিত আরএসএসের আদর্শকে হিন্দু শ্রেষ্ঠত্ববাদ বলে মনে করা হয়। খবর পাকিস্তানের গণমাধ্যম ডনের।

ইমরান খান রোববার এক টুইট বার্তায় বলেন, নাৎসি আদর্শে অনুপ্রাণিত আরএসএসের আদর্শ অনুসারে কাশ্মীরে কারফিউ ও দমনপীড়নের ঘটনা ঘটছে। আসন্ন গণহত্যার জন্যও দায়ী থাকবে এই আদর্শ।

তিনি আরও বলেন, কাশ্মীরিদেরকে জাতিগতভাবে নির্মূল করার মাধ্যমে কাশ্মীরের জনসংখ্যা পরিবর্তনের চেষ্টা চলছে। প্রশ্ন হলো, বিশ্ব কি হিটলারের কর্মকাণ্ডের মতো এটি দেখে আনন্দ উপভোগ করবে?

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী আরেক টুইট বার্তায় বলেন, আমি নাৎসি দলের আর্য শ্রেষ্ঠত্ববাদের মতো আরএসএসের এই হিন্দু শ্রেষ্ঠত্ববাদকেও ভয় পাচ্ছি। এটি শুধু কাশ্মীরে সীমাবদ্ধ থাকবে না।

তিনি আরও বলেন, এই হিন্দু শ্রেষ্ঠত্ববাদ এরপর ভারতের মুসলিমদের ওপর চাপিয়ে দেয়া হবে এবং শেষপর্যন্ত এর লক্ষ্য পাকিস্তান। এটি হিটলারের বাসস্থান সম্প্রসারণবাদের হিন্দু আধিপত্যবাদী ভার্সন।

গত ৫ আগস্ট রাষ্ট্রপতির নির্দেশ জারির মাধ্যমে ভারত সরকার দেশটির সংবিধানের ৩৭০ অনুচ্ছেদ বিলোপ এবং কাশ্মীর ভেঙে জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ নামের দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে বিভক্ত করে।

কে/এসএস