logo
  • ঢাকা বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

রাজস্থানে বিচারপতিদের ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ আর নয়

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ১৭ জুলাই ২০১৯, ০৯:১৫ | আপডেট : ১৭ জুলাই ২০১৯, ০৯:৩৫
রাজস্থান হাইকোর্ট
ছবি: সংগৃহীত
ভারতের রাজস্থান হাইকোর্ট বিচারপতিদের সম্বোধনের ক্ষেত্রে ব্রিটিশ প্রথা বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর ফলে বিচারপতিদের আর ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ বলে সম্বোধন করা যাবে না। সোমবার এ বিষয়ে একটি নোটিশ জারি করেন রাজস্থান হাইকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল সতীশ কুমার শর্মা।

bestelectronics
এর আগে রাজস্থান হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি রবীন্দ্র ভট্টের নেতৃত্বে রোববার এক বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ভারতীয় সংবিধানে উল্লিখিত সাম্যের নীতিকে মর্যাদা দিতেই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে ওই নোটিশে জানানো হয়েছে। আদালতে হাজির সব আইনজীবী ও শুনানিতে উপস্থিত ব্যক্তিদের ক্ষেত্রেই এই নির্দেশ কার্যকর হবে।

তবে ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ সম্বোধনে নিষিদ্ধ হলে বিচারপতিদের যাতে অসম্মান না করা হয়-সেদিকেও খেয়াল রেখেছে আদালত। নোটিশে বলা হয়েছে, ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’-এর পরিবর্তে তাদের ‘স্যার’ বলে সম্বোধন করা যেতে পারে।

২০১৪ সালে এক জনস্বার্থ মামলার শুনানিতে বিচারপতি এইচ এল দাত্তু ও বিচারপতি এস এ বোবদের বেঞ্চ জানিয়েছিল, বিচারপতিদের সম্মান জানানোটা জরুরি হলেও সেজন্য তাদের ‘মাই লর্ড’ বা ‘ইয়োর অনার’ বলে সম্বোধন করাটা বাধ্যতামূলক নয়।

এদিকে আদালতের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন আইনজীবীরা। ভারতীয় বিচারব্যবস্থায় ব্রিটিশ যুগের এই প্রথা অনুসরণ করা হলেও তা যে আধুনিক যুগে অচল, সেটিই মনে করিয়ে দিয়েছেন তারা। তাদের মতে, এ ধরনের রীতি কেবল দাস প্রথাকেই মনে করিয়ে দেয়।

এ/পি

bestelectronics bestelectronics
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়