গোলান উপত্যকায় ট্রাম্পের নামে শহর গড়ে তুলবে ইসরায়েল

প্রকাশ | ১৪ মে ২০১৯, ২১:৪৭ | আপডেট: ১৪ মে ২০১৯, ২২:০২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
ছবি: ইসরায়েলের গণমাধ্যম দ্য জেরুজালেম পোস্ট

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, গোলান উপত্যকায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নামে শহর গড়ে তোলা হবে। ইতোমধ্যে এই শহরের জন্য জায়গা নির্দিষ্ট করা হয়েছে।

রোববার সাপ্তাহিক মন্ত্রিসভা বৈঠকের সূচনা বক্তব্যে তিনি একথা জানান বলে জানিয়েছে দ্য জেরুজালেম পোস্ট। ট্রাম্প উপত্যকাটিতে ইসরায়েলের সার্বভৌমত্বের স্বীকৃতি দেয়ায় তিনি গত মাসে এই ঘোষণা দেন 

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গোলান উপত্যকায় ইসরায়েলি সার্বভৌমত্ব স্বীকৃতি দেয়ার মতো ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নেয়ায় আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ।

গত সপ্তাহে ইসরায়েলি সংবাদপত্র ম্যাকোর রিশোন জানায়, বেরুচিমের উত্তরাঞ্চলীয় গোলানের এই শহরে ধর্মনিরপেক্ষ বসতি গড়ে তোলা হবে। প্রথমে বসতিটিতে ১২০টি পরিবারকে বসবাসের অনুমতি দেয়া হবে।

আরও জানায়, কেলা অ্যালোনে অবস্থিত বেরুচিমে ১৯৯১ সালে এই বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা অনুমোদন করা হয়। গত কয়েক বছর ধরে গোলানে নতুন বসতি গড়ে তোলার ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে ইসরায়েল।

গোলান উপত্যকায় এখন ৩৩টি শহর ও গ্রাম আছে। এগুলোর মধ্যে চারটি ছাড়া সবকটি গড়ে তোলে ইসরায়েলি লেবার পার্টি। এখানে সবশেষ ১৯৯৯ সালে নিমরোদ নামের একটি বসতি গড়ে তোলা হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম সিবিএসের হিসাব মতে, ২০১৭ সালে গোলানে ৫০ হাজার বাসিন্দা ছিল। এদের মধ্যে প্রায় ২৩ হাজার বাসিন্দা ছিল ইহুদি। অন্যদিকে প্রায় ২৭ হাজার বাসিন্দা ছিল অন্য ধর্মাবলম্বী।

কে/এসএস