Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

মমতাকে সাহিত্য সম্মাননা, প্রতিবাদে পুরস্কার ফেরত লেখকের 

মমতাকে, সাহিত্য, সম্মাননা, প্রতিবাদে, পুরস্কার, ফেরত, লেখকের,  
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (ফাইল ছবি)

সাহিত্যে অবদানের জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিশেষ পুরস্কার প্রদানের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে পশ্চিমবঙ্গ বাংলা একাডেমি প্রদত্ত পুরস্কার ফেরত দিয়েছেন একজন বাঙালি লেখক ও লোকসংস্কৃতি গবেষক।

মঙ্গলবার (১০ মে) 'অন্নদা শঙ্কর স্মারক সম্মান' ফেরত দেন রত্না রশিদ বন্দ্যোপাধ্যায়। ২০১৯ সালে তাকে এ পুরস্কার দিয়েছিল একাডেমি।

একাডেমির চেয়ারম্যান ও শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুকে লেখা চিঠিতে রত্না রশিদ বলেন, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মবার্ষিকীতে মুখ্যমন্ত্রীকে একটি নতুন সাহিত্য পুরস্কার প্রদানের সিদ্ধান্তের কারণে তার পাওয়া পুরস্কারটি তার জন্য 'গলার কাঁটা' হয়ে উঠেছে। আমি অবিলম্বে পুরস্কারটি ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

রত্না রশিদ বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেন, একজন লেখক হিসেবে মুখ্যমন্ত্রীকে সাহিত্য পুরস্কার দেওয়ার পদক্ষেপে আমি অপমানিত বোধ করছি। এটি একটি খারাপ নজির স্থাপন করবে। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রীর নিরলস সাহিত্য সাধনার প্রশংসা করে একাডেমির বিবৃতি সত্যের সঙ্গে প্রতারণা।

এ বছর প্রবর্তিত পুরস্কারটি মুখ্যমন্ত্রীর ৯০০টিরও বেশি কবিতা সংকলনের বই 'কবিতা বিতান' এর জন্য ঘোষণা করা হয়।

গত সোমবার রাজ্য সরকার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মবার্ষিকী উদযাপনের জন্য একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। ওই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী উপস্থিত থাকলেও তার পক্ষ থেকে বসুর হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।

রত্না রশিদ আরও বলেন, আমরা মুখ্যমন্ত্রীকে তার রাজনৈতিক সংগ্রামের জন্য প্রশংসা করি এবং সম্মান করি। তিন মেয়াদে রাজ্য শাসন করার জন্য তিনি জনগণের কাছ থেকে বিশাল সমর্থন পেয়েছেন। আমরা তাকে ভোট দিয়েছি। তবে রাজনীতিতে তার অবদানকে আমি সাহিত্যের এই দাবির সঙ্গে সমান করতে পারি না। আমি এ বিষয়ে একমত নই।

লেখক রত্না রশিদ আরও বলেন, নিজের উপস্থিতিতে একাডেমির চেয়ারম্যান ব্রাত্য বসু পুরস্কার ঘোষণা করার পর সেটি গ্রহণ না করে বিচক্ষণতা দেখাতে পারতেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রীর বই 'কবিতা বিতান' ২০২০ সালে আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছিল।

সূত্র : এনডিটিভি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS