Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯

সাপ, ব্যাঙ রক্ষায় দুই তরুণ

সাপ, ব্যাঙ রক্ষায় দুই তরুণ
ফাইল ছবি

ইংল্যান্ডের দুই টিনএজার বিলুপ্তির আশঙ্কায় থাকা ব্যাঙ, কচ্ছপ আর সাপ নিয়ে চিন্তিত৷ এ লক্ষ্যে ম্যানচেস্টারের কাছে এক পরিত্যক্ত জমিতে তারা বিপন্ন সরীসৃপ ও উভচর প্রাণীর প্রজনন করছেন৷ তাদের জন্য সঠিক আবাসস্থলও খুঁজছেন তারা৷

বিষহীন সাপ অ্যাসকুলেপিয়ান, মুর ব্যাঙ কিংবা ইউরোপিয়ান পুকুরের কচ্ছপ - এই তিন প্রজাতি ব্রিটেনে প্রায় বিলুপ্ত৷

১৮ বছর বয়সী হার্ভে টুইটস ও টম হোয়াইটহার্স্ট এর পরিবর্তন চান৷ ম্যানচেস্টারের কাছে স্টাফোর্ডশায়ারে এক পরিত্যক্ত জমিতে তারা কিছু বড় ভিভারিয়ামে মুর ব্যাঙ, টিকটিকি রেখেছেন৷ সেখানে প্রায় ২০ প্রজাতির ২০০টির মতো প্রাণি আছে৷ সে হিসেবে ইউরোপের অন্যতম বড় সংগ্রহশালা এটি৷

২০২০ সালে জমি লিজ নিয়ে এটি তৈরি করেন তারা৷ তাদের লক্ষ্য, ব্রিটেনের গ্রামাঞ্চলে একসময় দেখা যেত এমন সব প্রাণী সংরক্ষণ, প্রজনন এবং আবারও তাদের প্রকৃতিতে ফিরিয়ে দেয়া৷ তাদের অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে প্রজনন৷

হার্ভে টুইটস বলেন, ‘‘এর চেয়ে বেশি ভালো লাগার আর কিছু নেই৷ আমি বলতে চাচ্ছি, যখন একটা সাপ ডিম পাড়ে, সেই ডিমে ফাটল দেখা দেয়, তারপর আপনি দেখতে পান যে, সেখান দিয়ে প্রথমে মাথা বের হচ্ছে- এমন দৃশ্য দেখতে খুবই অসাধারণ লাগে৷ মনে হয়, এমন দৃশ্য দেখার জন্যইতো আপনি সারা বছর অপেক্ষা করেছেন৷ এটা আপনাকে আরও মানবিক করে তোলে৷ আপনার জীবন সার্থক করে৷”

১৮ বছর বয়সী এই দুজন নিয়মিত ইউটিউবে তাদের কাজের ভিডিও পোস্ট করেন৷ তাদের সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা দুই হাজারের বেশি৷ ‘রিওয়াইল্ডিং মুভমেন্টে' গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে তারা৷

স্লো ওয়ার্মদের দেখলে বোঝা যায়, প্রাণিদের নিয়ে ভাবা কতটা জরুরি৷ একসময় ইংল্যান্ডের মধ্যাঞ্চলে তাদের অনেক দেখা যেত৷

টুইটস বলেন, ‘‘আমাদের আশপাশের এলাকায় তাদের আর দেখা যায় না৷ আমাদের এখানে যে ধরনের কৃষিকাজ করা হয় তার কারণে তারা পর্যাপ্ত থাকার জায়গা পায় না৷ তাছাড়া বীজ বোনার জন্য যখন মাটি খোঁড়া হয় তখন তারা মারা পড়ে৷”

হার্ভে টুইটস সবসময় স্লো ওয়ার্মদের জন্য উপযোগী জায়গা খুঁজতে থাকেন৷

তাদের পাঁচটি পুনর্বনায়ন প্রকল্প অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে৷ এই দুই তরুণ খুব শিগগির তাদের প্রাণিগুলো বনে ছাড়তে পারবেন বলে আশা করছেন৷ তবে প্রকল্পটি সফল হচ্ছে কিনা, তা জানতে আরও কয়েক বছর অপেক্ষা করতে হবে৷

সূত্র: ডয়েচে ভেলে

এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS