Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি ২০২২, ৭ মাঘ ১৪২৮
discover

কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা

কাবুল বিমানবন্দরে সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা
বিবিসি থেকে নেয়া

আফগানিস্তানের কাবুল বিমানবন্দরে একটি সন্ত্রাসী হামলার ব্যাপারে সতর্ক করে দিয়েছে বেশ কয়েকটি দেশ। এজন্য কাবুল বিমানবন্দরে না যেতে নিজ দেশের নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়েছে দেশগুলো। খবর বিবিসির।

অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্য তাদের দেশের নাগরিকদের জন্য এই সতর্কতা জারি করেছে। যারা ইতোমধ্যেই বিমানবন্দরের বাইরে জড়ো হয়েছেন, তাদের দ্রুত সেখান থেকে চলে যেতে বলেছে দেশগুলো।

১০ দিন আগে তালেবানরা কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার পর এ পর্যন্ত ৮২ হাজারের বেশি মানুষকে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ৩১ আগস্ট ডেডলাইনের মধ্যে নিজ নিজ দেশের নাগরিকদের ‍উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বিভিন্ন দেশ।

উদ্ধারের আশায় এখনও হাজার হাজার মানুষ বিমানবন্দরের ভেতরে এবং বাইরে অপেক্ষা করছে। তারা কোনোভাবে দেশটি থেকে বের হতে পারবে এমন আশা করছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেছেন, তালেবানরা সময়সীমা বাড়ানোর বিরোধিতা করেছে। তবে ৩১ আগস্টের পরও বিদেশি এবং আফগানরা দেশ ছাড়তে পারবে বলে তালেবানরা নাকি তাকে আশ্বাস দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ম্যারিস পেইন বলেছেন, সেখানে চলমান এবং একটি সন্ত্রাসী হামলার খুব বড় হুমকি রয়েছে। এর কয়েক ঘণ্টা আগে যুক্তরাষ্ট্র তার নাগরিকদের হামলার ব্যাপারে সতর্ক করে দেয়।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, যারা অ্যাবে গেট, পূর্ব বা উত্তর গেটে অপেক্ষা করছে তাদের ‘দ্রুত ওই স্থান ত্যাগ’ করা উচিত। একই ধরনের সতর্কতা জারি করে যুক্তরাজ্য।

তারা জানায়, যারা সেখানে অপেক্ষা করছে তাদের ‘একটি নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়া উচিত এবং পরবর্তী নির্দেশের জন্য অপেক্ষা’ করা।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, আফগানিস্তানের নিরাপত্তা পরিস্থিতি ‘এখনও পরিবর্তনশীল’। এসময় তারা জানায়, সেখানে ‘একটি চলমান এবং একটি সন্ত্রাসী হামলার উচ্চ হুমকি’ রয়েছে।

তবে আফগানিস্তানে কি ধরনের নিরাপত্তা হুমকি রয়েছে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানায়নি এসব দেশ। এর আগে মঙ্গলবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন, মার্কিন নেতৃত্বাধীন এই উদ্ধার অভিযান দ্রুত শেষ করতে হবে কারণ আফগানিস্তানে ইসলামিক স্টেট গ্রুপের হামলা চালানোর হুমকি বাড়ছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ১৯ হাজার মানুষকে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার ব্লিনকেন এই তথ্য দিয়েছেন। পরিস্থিতি ঘোলাটে হয়ে যাওয়ার পর থেকেই সেখানে উদ্ধার অভিযানের গতি বাড়ানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS