Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮

ট্র্যাফিক জ্যামে বসে থেকে বিরক্ত যুবক ঝাঁপ দিলেন কুমিরে ভরা নদীতে!

ট্র্যাফিক জ্যামে বসে থেকে বিরক্ত যুবক ঝাঁপ দিলেন কুমিরে ভরা নদীতে!
সংগৃহীত

ট্র্যাফিক জ্যামে বসে থাকতে কারোরই ভালো লাগে না। কিন্তু চাইলেই তো গাড়ি রাস্তায় ফেলে রেখে চলে যাওয়া যায় না। তবে ট্র্যাফিক জ্যামে বসে থাকতে থাকতে বিরক্ত হয়ে এক যুবক কুমিরে ভরা নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন। এরপর এক ঘণ্টা খোঁজাখুজির পর উদ্ধার করে গ্রেপ্তার করা হয় মার্কিন ওই যুবককে। খবর টাইমস নাউ নিউজের।

জিমি ইভান জেনিংস নামের ২৬ বছর বয়সী ওই যুবক লুইজিয়ানার বাসিন্দা। সড়ক দুর্ঘটনার কারণে দুই ঘণ্টার বেশি সময় ধরে ট্র্যাফিক জ্যামে আটকে ছিলেন তিনি। বসে থাকতে থাকতে বিরক্ত জিমি ভেবেছিলেন পাশে থাকা নদীতে নেমে কিছুক্ষণ সাঁতার কাটবেন। তারপর আবারও গাড়ি চড়বেন।

তিনি বলেন, আমরা গাড়িতে বসে থেকে বিরক্ত হয়ে গিয়েছিলাম। আমি সামনে নদী দেখতে পাই। আমার কাছে সেখানে বোকামিপূর্ণ মনে হলেও আমি নদীতে ঝাঁপ দেই। জামাকাপড় না খুলেই আটচাফালাইয়া নদীতে ঝাঁপ দিই আমি। কিন্তু নদীতে যে কুমির আছে তা জানতাম না আমি।

জিমি বলেন, আমি জীবন নিয়ে খুব খুশি ছিলাম। সবকিছু আমার মন মতো হচ্ছিল। আমি মানুষজনকে আগেও নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়তে দেখেছি। কিন্তু পরক্ষণের আমার মনে পড়ে, এগুলো তো আমি সিনেমায় দেখেছি! কিন্তু নদীতে ঝাঁপ দেয়ার পরই বিপত্তি দেখা দেয়।

তিনি বলেন, আমি বাম বাহুতে আঘাত পাই। আমি সাঁতারে কিনারায় আসতে চাইছিলাম। কিন্তু স্রোত অনেক শক্তিশালী ছিল। দেড় ঘণ্টা সাঁতার কেটে আমি ক্লান্ত হয়ে যাই। আমার বাম বাহু অনেকটা অকেজো হয়ে যায়। আমি ডান হাত এবং পা দিয়ে কোনও রকমে ভেসে ছিলাম। পুরোটা সময় আমি প্রার্থনা করছিলাম।

পরে অবশ্য নদীর কিনারায় পৌঁছাতে সক্ষম হন জিমি। সেখানে পৌঁছানোর পর তাকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS