Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮

ফিলিস্তিনি আন্দোলনের নতুন মধ্যমণি যে যমজ ভাই-বোন

ফিলিস্তিনি আন্দোলনের নতুন মধ্যমণি যে যমজ ভাই-বোন
যমজ ভাই বোন মুনা আল-কুর্দ ও মোহম্মদ আল-কুর্দ || সংগৃহীত ছবি

ফিলিস্তিনের গাজায় তাণ্ডব চালিয়ে বাধ্য হয়ে যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছেও ক্ষান্ত হয়নি যুদ্ধবাজ ইহুদিবাদিরা। তাইতো দুই সপ্তাহের মাথায় আবারও জবরদখল করে রাখা পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জাররাহ মহল্লায় সহিংসতা ছড়াচ্ছে ইসরায়েল।

উচ্ছেদের হুমকিতে রয়েছে শেখ জাররাহর যেসব ফিলিস্তিনি পরিবার তাদের একটি আল-কুর্দ পরিবার। রোববার ইসরায়েলি পুলিশ ওই বাড়িতে ঢুকে ২৩ বছরের তরুণী মুনা আল-কুর্দকে ধরে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে তার ভাই মোহাম্মেদ আল-কুর্দ পুলিশ স্টেশনে গিয়ে স্বেচ্ছায় গ্রেপ্তারবরণ করেন। যদিও কয়েক ঘণ্টা ধরে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর ইসরায়েলি সন্ত্রাসী পুলিশ তাদের ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

মুনা ও মোহাম্মদের বাবা নাবিল আল-কুর্দ পরে সাংবাদিকদের বলেন, হঠাৎ ঘরে ঢুকে পুলিশের তল্লাশি এবং মেয়েকে হাতকড়া পরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় তিনি হতবাক হয়ে পড়েছিলেন। কেন বিনা উস্কানিতে মুনা কুর্দকে ইসরায়েলি পুলিশ ধরে নিয়ে যায়?

ইসরায়েলি সন্ত্রাসী বাহিনীর দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সম্প্রতি পূর্ব জেরুজালেমে দাঙ্গায় উস্কানি দেয়ার অভিযোগে করা এক মামলায় নাকি তাকে আটক করা হয়।

মুনা বা তার ভাই মোহাম্মদ নিজেরা শেখ জাররাহ বা আল আকসা মসজিদ চত্বরে ইসরায়েলি পুলিশের দিকে পাথর ছুঁড়েছিলেন কিনা বা ছুঁড়তে উৎসাহ দিয়েছিলেন কিনা তার কোনো প্রমাণ নেই। তবে এই দুই যমজ ফিলিস্তিনি ভাই-বোন এখন ইসরায়েলের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনিদের প্রতিবাদ আন্দোলনের মধ্যমণি হয়ে উঠেছেন।

বিশেষ করে শেখ জাররাহ থেকে ফিলিস্তিনি উচ্ছেদের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে প্রতিবাদ তৈরিতে মুখ্য ভূমিকা রেখেছেন এই দুই ভাই-বোন।

তাই তো রোববার যখন তাদের আটকের খবর সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে, মুহূর্তের মধ্যে তাদের প্রচুর সমর্থক দলে দলে পূর্ব জেরুজালেমের ওই পুলিশ স্টেশনের কাছে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে।

সে সময় পুলিশের ছোঁড়া স্টান গ্রেনেড, কাঁদানে গ্যাসে অনেক ফিলিস্তিনি জখম হয়েছে। তবুও বিক্ষোভকারীরা বিক্ষোভ অব্যাহত রাখে। শেষ পর্যন্ত বিক্ষোভের পরিধি বাড়তে শুরু করলে ভয় পেয়ে যমজ ওই দুই ভাই-বোনকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী।

গত ক'মাসে তরুণ বয়সী এই দুই ভাই-বোন শেখ জারাহ থেকে উচ্ছেদ ঠেকানোর আন্দোলন এবং সার্বিকভাবে ইসরায়েলি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি প্রতিবাদ আন্দোলনের অত্যন্ত পরিচিত দুই মুখ হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই আন্দোলনে তারা কার্যত নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তারা দু'জনই টুইটার এবং ইনস্টাগ্রামসহ সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্লাটফর্মে খুবই সরব। কথা ও লেখাতেও খুবই ধারালো এই দুই ভাইবোন।

রোববার পুলিশের হাত থেকে ছাড়া পাওয়ার পর মুনা সাংবাদিকদের সামনে বলেন, আমাদের ভয় দেখাতে, আতঙ্কিত করতে তারা (ইসরায়েল) যাই করুক না কেন, যতবারই আমাদের গ্রেপ্তার করুক, আমরা ভয় পাই না।

পরপরই ভাই মোহাম্মদ টুইট করেছেন, আমরা স্বাধীন, মুক্ত। আমাদের ভয় নেই। তারা (ইসরায়েল) কখনই আমাদের আতঙ্কিত করতে পারবে না। তাদের এসব কথা, টুইট হাজার হাজার শেয়ার হচ্ছে। সূত্র : বিবিসি

টিএস/পি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS