Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ১০ মে ২০২১, ২৭ বৈশাখ ১৪২৮

পানি নিয়ে বিরোধে সংঘর্ষ, প্রাণ গেল ৩১ জনের

Kyrgyzstan says 31 killed in clashes at Tajikistan border
অন্তত সাড়ে ১৩ হাজার অধীবাসীকে সীমান্ত এলাকা থেকে সরিয়ে নিয়েছে কিরগিজস্তান

পানি নিয়ে বিরোধের জের ধরে বছরের পর বছর ধরে চলা সহিংসতা আবারও শুরু হয়েছে কিরগিজস্তান-তাজিকিস্তান সীমান্তে। এতে কমপক্ষে ৩১ জন মারা গিয়েছেন এবং আহত হয়েছেন শতাধিক।

দীর্ঘদিনের এই বিরোধের জেরে সাম্প্রতিক এই সংঘর্ষের পর সীমান্ত অঞ্চল থেকে অন্তত সাড়ে ১৩ হাজার মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, গত বুধবার উভয় দেশের সীমান্তবর্তী লোকেরা পানির জায়গায় নজরদারি ক্যামেরা বসানোর পরে একে অপরের দিকে পাথর ছুঁড়ে মারলে সংঘর্ষের সূত্রপাত ঘটে।পরে সৈন্যরা সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে। পরে একটি চুক্তির কারণে তারা পিছু হঠতে সম্মত হয়। যদিও পরবর্তীতে গুলি চালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

কিরগিজস্তানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী আলিজা সলটনবকোভা এক টেলিভিশন ব্রিফিংয়ে জানান, বৃহস্পতিবার সহিংসতা শুরু হওয়ার পর থেকে এখন অবধি ৩১ জন নিহত এবং আহত হয়েছেন ১৫০ জন। নিহতদের মধ্যে একজন অল্প বয়সী মেয়েও আছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশিত বিভিন্ন ছবিতে দেখা গেছে, সীমান্তবর্তী ব্যাটেন অঞ্চলের কিছু বিল্ডিংয়ে আগুন জ্বলছে। এর মধ্যে রয়েছে ২০টির বেশি বাড়ি, একটি স্কুল, একটি ক্যাসিনো ও আটটি দোকান।

ব্যাটেন পুলিশের একজন মুখপাত্র বার্তা সংস্থা এএফপিকে টেলিফোনে জানান, রাতেও গোলাগুলি চলেছে। তবে অতটা নিবিড়ভাবে নয়। উভয়পক্ষের সামরিক ইউনিট ও বেসামরিক লোকদের মাঝে এ সহিংসতা হয়।

ব্যাটেন প্রদেশের গভর্নর জানান, পানির সীমানায় বসানো সরঞ্জাম অপসারণ করানো উচিত বলে উভয়পক্ষই প্রথমে সম্মত হয়েছিল। কিন্তু পরে তাজিকিস্তান এটি প্রত্যাখ্যান করে। সূত্র : আল জাজিরা ও বিবিসি

টিএস/পি

RTV Drama
RTVPLUS