Mir cement
logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮

দিল্লির পার্ক, খোলা মাঠ, পার্কিং লটকে শ্মশান বানিয়ে চলছে সৎকার

Delhi's parks, open fields, parking lots are now crematoriums
সংগৃহীত

ভারতের রাজধানী দিল্লিতে কোভিডে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন শত শত মানুষের মৃত্যু হচ্ছে। দিল্লি এখন আতঙ্কের নগরীতে পরিণত হয়েছে। সোমবারও দিল্লিতে সরকারি হিসাবে ৩৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শহরের হাসপাতালগুলোতে জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না। খালি নেই আইসিইউ বেড। চরম সংকট দেখা দিয়েছে অক্সিজেন এবং প্রাণরক্ষাকারী ওষুধের।

অনেক শহরে শ্মশানগুলো শবদাহ করার নজিরবিহীন চাপে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। শ্মশান কর্মীরা দিনরাত কাজ করছে। দাহ করার জন্য কাঠের জোগাড়, সেগুলো সাজানোর ভার মৃতের স্বজনদের ঘাড়ে এসে পড়ছে।

রাজধানী দিল্লির অবস্থা এতটাই সঙ্গিন যে খোলা মাঠ, পার্ক এমনকি গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গাতেও অস্থায়ী শ্মশান তৈরি করা হচ্ছে। কারণ যেসব সরকারি শশ্মান দিল্লিতে রয়েছে সেগুলো আর চাপ নিতে পারছে না।

মৃতদেহ নিয়ে গিয়ে দাহ করার জন্য তীব্র গরম আর চিতার আগুনের হলকার মধ্যে পিপিইতে মোড়া স্বজনদের ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

দিল্লির সারাই কালে খান শ্মশানের ভেতর খালি জায়গায় গত কয়েকদিনে নতুন ২৭টি দাহ করার বেদি তৈরি করা হয়েছে। শ্মশানটির লাগোয়া পার্কে আরও ৮০টি বেদি তৈরি হয়েছে।

যমুনা নদীর তীর ঘেঁষা এলাকাগুলোতেও অস্থায়ী শ্মশান তৈরির জন্য জায়গা খুঁজছে দিল্লি পৌর কর্তৃপক্ষ। এরই মধ্যে আগামী কয়েক সপ্তাহ পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

RTV Drama
RTVPLUS