Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮

রোজা রাখায় দুই বডিগার্ডকে পেটানো মালিক জামিন পেলেন

Boss beat up bodyguards for fasting
সংগৃহীত

রোজা রাখায় নিজের দুই দেহরক্ষীকে পিটিয়েছেন মালয়েশিয়ার একজন ব্যবসায়ী। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অন্তত পাঁচটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। চুং চি ইয়াং নামের ৪৩ বছর বয়সী ওই ব্যবসায়ী তার দুই দেহরক্ষীকে মেরেই ক্ষান্ত হননি, তাদের দিকে বন্দুকও তাক করেন।

এসব ঘটনায় ইয়্যাংয়ের বিরুদ্ধে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে ম্যাজিস্ট্রেট মোহামাদ ফারিদ আব্দুল লতিফের কাছে নিজের বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ইয়াংয়ের ওই দুই দেহরক্ষী হচ্ছেন আহমাদ শামসুরি জাইলানি (২৭) ও মোহাম্মদ আজমিনিজাম জুলকেপলি (৪৪)। গত ১৩ এপ্রিল ডাং ওয়াঙ্গিতে ওয়ান কেএল কন্ডোমিনিয়ামের এলিভেটর এবং লবিতে এই দুজনকে মারধর করেন ইয়াং।

ইয়াংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার এক বছরের কারাদণ্ড বা ২ হাজার মালয়েশিয়ান রিঙ্গিত জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হতে পারে।

ডেপুটি পাবলিক প্রসিকিউটর নর আশিকিন মোখতার বলেছেন, একজন চাকরিদাতা হিসেবে ইয়াংয়ের উচিত ছিল তার কর্মীদের সুরক্ষা দেয়া। তিনি সেটা না করে তাদের এভাবে আঘাত করেছে। এটা ধর্ম ও সমাজের স্পর্শকাতর একটি ইস্যু। এটা গুরুতর অপরাধ।

মোখতার আরও বলেন, ভুক্তভোগী দুই ব্যক্তি ইয়াংয়ের অধীনে ৩ ও ৭ বছর ধরে কাজ করছেন। কিন্তু তিনি তাদের সঙ্গে এমন আচরণ করেছেন।

পরে অবশ্য ১০ হাজার রিঙ্গিতের বিনিময়ে আদালত থেকে জামিন পান ইয়াং। ইয়াংয়ের আইনজীবী বলেন, তার মক্কেলের স্ত্রী, চার সন্তান এবং বাবা-মা রয়েছে। এছাড়া তিনি কোলন ক্যান্সার, নিদ্রাহীনতা এবং উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছেন।

RTV Drama
RTVPLUS