Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

মাস্ক কেনার টাকা নেই, পাখির বাসা মুখে বেঁধে পেনশন তুলতে এলেন বৃদ্ধ

There is no money to buy a mask, the old man came to collect the pension by tying the bird's nest on his face
সংগৃহীত ছবি

করোনা মহামারির বাড়বাড়ন্ত ঠেকাতে শুরু থেকেই মাস্ক পরার ওপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে সবখানেই। কিন্তু সামান্য সেই মাস্ক কেনার সামর্থ্য হয়নি এক বৃদ্ধ রাখালের।

এদিকে আবার ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ নীতিতে চলছে সরকারি অফিসগুলো। মাস্ক না পরলে ঢুকেতেই দেয়া হচ্ছে না। আর তাই মুখে পাখির বাসা বেঁধে বৃহস্পতিবার ভারতের এক সরকারি অফিসে যান মেকালা কুরমায়া নামের ওই রাখাল। তিনি তেলেঙ্গানা রাজ্যের মাহবুবনগর জেলার চিনামুনুগল চাদ এলাকার বাসিন্দা।

অন্যান্য রাজ্যের মতো তীব্র সংক্রমণের তেলেঙ্গানা রাজ্য সরকার এ মাসের শুরুতে জনসাধারণকে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক ব্যবহারের আদেশ দিয়েছে। সেই আদেশে বলা হয়েছে, মাস্ক না পরলে এক হাজার রুপি জরিমানা করা হবে।

কিন্তু পেনশন নিতে তো সরকারি অফিসে যেতেই হবে কুরমায়াকে। তিনি জানতেন, মাস্ক ছাড়া তাকে সরকারি অফিসে ঢুকতে দেয়া হবে না। কিন্তু মাস্ক কেনার সামর্থ্য না থাকায় তেলেঙ্গানা থেকে তিনি মাস্ক হিসেবে এক ধরনের পাখির বাসা ব্যবহার করেন।

এরপর তা পরে যান পেনশন তুলতে। কুরমায়ার সেই ‘মাস্ক’ পরা একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

সরকারি অফিসগুলোতে বিনামূল্যে মাস্ক দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি। যারা মাস্ক কিনতে পারেন না, তাদেরকে বিনামূল্যে মাস্ক সরবরাহের জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে অনুরোধ জানান কুরমায়া।

প্রসঙ্গত, তেলেঙ্গানা রাজ্যে বর্তমানে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬ হাজার ৪৮৮। সূত্র : ইন্ডিয়া টুডে

টিএস

RTV Drama
RTVPLUS