logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

মোবাইল ফোনে কথা বলায় রাস্তায় ফেলে মারধর করলো স্বামী-ছেলে

Husband, son beat woman for talking on phone In Ahmedabad
সংগৃহীত

অপরাধ তার এটুকুই যে তিনি মোবাইল ফোনে কথা বলেছিলেন। তাও আবার নিজের বোনের সঙ্গে। আর সেই অপরাধেই তাকে রাস্তায় সবার সামনে মারধর করেছে নিজেরই স্বামী ও সন্তান। সঙ্গে যোগ দিয়েছিল তার দেবরও।

এমনই অবাক করা ঘটনা ঘটেছে ভারতের গুজরাটের আহমেদাবাদের ঈশানপুরে। মারধরের শিকার হওয়ার নারীর নাম গীতা দেবীপূজাক। ৪৫ বছর বয়সী গীতা জানান, নিজের বোনের সঙ্গে ফোনে কথা বলার সময় মারধরের শিকার হন তিনি।

গীতা বলেন, আমি আমার বোন রত্নার সঙ্গে কথা বলছিলাম। এসময় আমার স্বামী আমার কাছে জানতে চায় আমি কার সঙ্গে কথা বলছি? তিনি বলেন, হঠাৎ করেই তার স্বামী তাকে মারতে থাকে এবং কোনও কারণ ছাড়াই তার সঙ্গে চিৎকার চেঁচামেচি করতে থাকে।

তিনি আরও বলেন, একটু পর তার ছেলে সুনীল এবং দেবর রাজুও তার স্বামীর সঙ্গে যোগ দিয়ে তাকে মারতে থাকে। পরে তাকে ঘরে নিয়ে আসে তারা। সেখানে তাকে মারধর করা হয় বলে পুলিশে অভিযোগ দেন গীতা। এসময় পালাতে গেলে স্বামী ও ছেলে লোহার পাইপ ও রাজু লাঠি দিয়ে গীতাকে আঘাত করে।

পুলিশের কাছে অভিযোগে গীতা বলেন, তিনি পড়ে গেলে তিনজন মিলে তাকে লাথি মারে ও আঘাত করতে থাকে। এই হামলার ঘটনায় মাথায় গুরুতর আঘাত পান গীতা। পরে লোকজন বাড়ির বাইরে জড়ো হলে গীতা অ্যাম্বুলেন্স ডাকেন এবং হাসপাতালে ভর্তি হন।

RTV Drama
RTVPLUS