logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

মাদরাসায় হিন্দু ধর্মগ্রন্থ বেদ-গীতা-রামায়ণ পড়ানোর প্রস্তাব

new nios curriculum will now teach geeta ramayana in madrasas
ফাইল ছবি

এবার মাদরাসার পাঠক্রমে হিন্দুদের বিভিন্ন ধর্মগ্রন্থ পড়ানোর প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। প্রাচীন ভারতের জ্ঞান-ঐতিহ্য-সংস্কৃতি চর্চার অংশ হিসেবে দেশটির কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রণালয় এমন প্রস্তাব দিয়েছে।

জাতীয় ওপেন স্কুলিং সংস্থার নতুন এই প্রস্তাবে এবার থেকে মাদরাসাতেও পড়ানো হবে বেদ, গীতা, রামায়ণ। প্রাথমিকভাবে ১০০ মাদরাসায় এগুলো পড়ানো শুরু করা হবে। পরবর্তীতে ৫০০ মাদরাসায় তা চালু করা হবে।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ওপেন স্কুলিং (এনআইওএস) হচ্ছে ভারতের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি স্বাধীন শিক্ষা সংস্থা। সংস্থাটি দেশটিতে বিদ্যালয় স্তরের একটি শিক্ষাবোর্ড। ১৯৮৯ সালের ভারত সরকারের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রণালয় এই বোর্ড প্রতিষ্ঠা করেন।

এনআইওএস’র নতুন প্রস্তাবে ১৫টি নতুন কোর্সের কথা বলা হয়েছে। সেখানে ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির ধারক-বাহক হিসেবে বেদ, যোগ, রামায়ণ ও মহাভারত রাখার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। সংস্কৃত ভাষা শেখানোরও কথা বলা হয়েছে সেখানে। পাশাপাশি ভোকেশনাল স্কিল ও গীতা পড়ানোর কথা বলা হয়েছে।

এদিকে এনআইওএস’র নতুন এই প্রস্তাব মাদরাসা ও আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীদের ভারতীয় সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বুঝতে সাহায্য করবে বলে দাবি করেছেন দেশটির কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী ড. রমেশ পোখরিয়াল। ভারত প্রাচীন ভাষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতির ভাণ্ডার বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরে ভারতের আসামে ৬০০টিরও বেশি সরকারি মাদরাসা বন্ধ করে এগুলোকে সাধারণ বিদ্যালয় হিসেবে চালু করতে রাজ্যের বিধানসভায় একটি বিল পাস হয়েছে। এর আগে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর আসাম মন্ত্রিসভা সব মাদ্রাসা ও সংস্কৃত বিদ্যালয় বন্ধ করার প্রস্তাব অনুমোদন দেয়।

RTV Drama
RTVPLUS