২৩ বছর বয়সেই ১১ সন্তানের মা!

প্রকাশ | ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৭:২৩ | আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৭:২৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
সংগৃহীত

তিনি বাচ্চা এতটাই ভালোবাসেন যে ইতোমধ্যেই ১১ সন্তানের মা হয়েছেন। কিন্তু তাতেও সাধ মেটেনি তার। ১০৫ সন্তানের মা হতে চান ২৩ বছর বয়সী ক্রিস্টিনা ওজতুর্ক।

ক্রিস্টিনা ও তার স্বামী গালিপ ওজতুর্ক জর্জিয়ার একটি বড় হোটেলের মালিক। কোটিপতি এই দম্পতির অর্থের অভাব নেই। তারা দুজনেই বাচ্চা খুব ভালবাসেন। দুজনেই চান সারা জীবন তাদের সংসারে বাচ্চারা খেলা করে বেড়াক।

যেমন ইচ্ছা তেমন কাজ। এখন এই দম্পতির বাড়িতে গেলে আনাচ-কানাচে শুধুই বাচ্চাদের খেলা করতে দেখা যাবে।

জর্জিয়াতে গর্ভভাড়া বেআইনি নয়। ১১ সন্তানের মধ্যে ১০ জনেরই জন্ম হয়েছে এভাবে। অর্থাৎ অন্য কোনও নারীর গর্ভে বেড়ে উঠেছে তাদের সন্তান।

তাদের মধ্যে শুধু একটি সন্তান ক্রিস্টিনার গর্ভে বেড়ে উঠেছে। ৬ বছর আগে এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন তিনি। সেই সন্তানের নাম ভিকা। ভিকাই তাদের প্রথম সন্তান। ভিকার পর তাদের সব সন্তানই অন্য নারীর গর্ভে বড় হয়েছে।

গর্ভভাড়া নেয়াটা যথেষ্ট ব্যয়বহুল। যদিও ২৩ বছরের কোটিপতি ক্রিস্টিনা এবং তার স্বামীর শিশুপ্রেমের কাছে তা নেহাতই ‘ছোট বিষয়’। ক্রিস্টিনা জানান, ওই ১০ সন্তানের জন্য ৮ হাজার ইউরো করে খরচ করতে হয়েছে। সবমিলিয়ে ৮০ হাজার ইউরো খরচ হয়েছে।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজের স্বপ্নের কথা তুলে ধরেছেন ২৩ বছরের ক্রিস্টিনা। তিনি লেখেন, ১০ সন্তানের মধ্যে কনিষ্ঠতম অলিভিয়া। গত মাসে ওর জন্ম হয়েছে। এরপরই ক্রিস্টিনা জানান, তারা দুজনেই আরও অনেক সন্তান চান। মোট ১০৫টি সন্তানের জন্ম দিতে চান তারা।

ক্রিস্টিনার মতো এক জন জীবনসঙ্গী পেয়ে আপ্লুত গালিপও। স্ত্রীর স্বপ্নপূরণের সঙ্গী যে তিনিও।