logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৫:০৯
আপডেট : ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১৫:২৬

আমিরাতে ঢুকতে পারবে না ১২টি মুসলিম প্রধান দেশের মানুষ

People from 12 Muslim-majority countries will no longer be able to enter UAE
সংগৃহীত
বিশ্বের ১৩টি দেশের নাগরিকদের জন্য নতুন ভিসা ইস্যু করবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এই ১৩টি দেশের মধ্যে কেনিয়া বাদে ১২টিই মুসলিম প্রধান দেশ। আমিরাতের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বিজনেস পার্কের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর দিয়েছে।

গত ১৮ নভেম্বর থেকে  সংযুক্ত আরব আমিরাতের এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে জানিয়েছে কাতার ভিত্তিক গণমাধ্যম আল জাজিরা। যেসব দেশ আমিরাতের ভিসা নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়েছে সেগুলো হলো-ইরান, তুরস্ক, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, কেনিয়া, সোমালিয়া, আলজেরিয়া, লেবানন, সিরিয়া, ইরাক, লিবিয়া, তিউনিশিয়া এবং ইয়েমেন।

আমিরাত বলছে, তালিকাভুক্ত এসব দেশের লোকজন কর্মসংস্থানের জন্য বা ভিজিট ভিসার জন্যও আবেদন করতে পারবে না। এ ব্যাপারে আমিরাত সরকার দেশটির ইমিগ্রেশন অথরিটির কাছে যে পরিপত্র জারি করেছে তাতে কথা পরিষ্কার নয় যে, নিষেধাজ্ঞার ক্ষেত্রে কোনও দেশের জন্য কোনোরকম ছাড় আছে কিনা।

একটি সূত্র দাবি করেছে, মূলত নিরাপত্তাজনিত উদ্বেগ থেকে আমিরাত সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে আমিরাত সরকার কি ধরনের ঝুঁকি অনুভব করছে তা পরিষ্কার করে  জানাতে পারেনি সূত্রটি। সূত্রটি আশা করছে যে, অল্প সময় পরেই ভিসা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে।

গত সপ্তাহে ইসলামাবাদ জানিয়েছিল, পাকিস্তানসহ কয়েকটি দেশের নাগরিকদের জন্য নতুন ভিসা ইস্যু করা বন্ধ করে দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। ইসলামাবাদ বলেছে, কেন ভিসা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলো তা নিয়ে আমিরাতের কাছ থেকে তথ্য জোগাড়ের চেষ্টা করছে তারা।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যেসব নাগরিক আগে থেকেই সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভিসাধারী তারা দেশটিতে প্রবেশ করতে পারবেন।

RTV Drama
RTVPLUS