logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

জ্বর, বমির উপসর্গ নিয়ে নতুন ভাইরাস, ছড়াচ্ছে সংস্পর্শেও

human-to-human transmission of rare virus in Bolivia
দ্য গার্ডিয়ান থেকে নেয়া
করোনাভাইরাসে তাণ্ডবে রীতিমতো নাভিশ্বাস উঠে গেছে বিশ্ববাসীর। এরই মধ্যে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ বলিভিয়ায় চাপারে ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) এমন খবর জানিয়েছে।

এই ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির শরীর থেকে অন্যের শরীরে ছড়াতে পারে। সংস্পর্শে এলেও হতে পারে সংক্রমণ। ২০০৪ সালে খুব ছোট পরিসরে এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছিল। বলিভিয়ার উত্তরে লা পাজ প্রদেশের চাপারে অঞ্চলে এই ভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হওয়ায় এটিকে চাপারে ভাইরাসও বলা হচ্ছে।

চিকিৎসকরা বলছেন, এই ভাইরাসে আক্রান্তদের শরীরে ইবোলার মতোই জ্বরের উপসর্গ দেখা দেয়। দ্য গার্ডিয়ান জানিয়েছে, ২০১৯ সালে এই ভাইরাসে আক্রান্ত দুই ব্যক্তি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে গিয়েছিলেন। লা পাজ শহরের স্বাস্থ্যকেন্দ্রটিতে তিনজন স্বাস্থ্যকর্মী তাদের সংস্পর্শে আসেন। ওই দুই রোগীর মধ্যে একজন এবং তিন স্বাস্থ্যকর্মীর মধ্যে দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

সিডিসি’র মহামারি বিশেষজ্ঞ কেইটলিন কোসাবুম বলেছেন, একজন তরুণ মেডিকেল রেসিডেন্ট, একজন অ্যাম্বুলেন্স মেডিক ও একজন গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজিস্ট আক্রান্ত রোগীদের সংস্পর্শে আসার পর এই ভাইরাসে আক্রান্ত হন।

ধারণা করা হচ্ছে, ইঁদুরের মাধ্যমে এই ভাইরাসে সংক্রমণ ঘটেছে। বিশেষজ্ঞরা বলছে, বডি ফ্লুইডের (যেমন ঘাম, মূত্র, থুতু, প্লাজমা) মাধ্যমে এই ভাইরাস ছড়াতে পারে। এই ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির প্রাথমিক লক্ষণ হচ্ছে- জ্বর, বমি, মাড়ি থেকে রক্তপাত, গায়ে ব্যথা, পেটে ব্যথা।

RTVPLUS