গিলগিট-বালতিস্তান ভারতের অংশ: রাজনাথ সিং

প্রকাশ | ০২ নভেম্বর ২০২০, ১৯:৪১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
ফাইল ছবি

পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর, গিলগিট-বালতিস্তান নিয়ে বরাবরই পাকিস্তানের কাছে আপত্তি করে আসছে ভারত। সেই আপত্তি কানে না তুলে গিলগিট-বালতিস্তানকে পাকিস্তানের পঞ্চম প্রদেশ হিসেবে ঘোষণা করেছেন ইমরান খান। এর তীব্র নিন্দা জানায় দিল্লি।

এবার এই ইস্যুতে সরব হয়েছেন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। সোমবার টুইট বার্তায় রাজনাথ বলেন, গিলগিট-বালতিস্তান ভারতের অংশ। বেআইনিভাবে তা দখল করে রেখেছে পাকিস্তান। গিলগিট-বালতিস্তানকে নতুন প্রদেশ বলে ঘোষণা করেছে পাকিস্তান। এ নিয়ে ভারতের বক্তব্য হলো, পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীর ও গিলগিট-বালতিস্তান ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ।

রাজনাথ আরও বলেন, ভারত কখনই চায়নি যে ভারত ভাগ হোক। কিন্তু তা হয়েছে। সবাই জানে যেসব হিন্দু, শিখ ও বৌদ্ধ পাকিস্তানে রয়েছেন তাদের সঙ্গে কী ব্যবহার করা হচ্ছে। সেখানকার অমুসলিম মানুষজনকে ধর্মীয় অত্যাচার থেকে রক্ষা করতে ভারত নাগরিকত্ব আইন তৈরি করেছে।

গতকাল রোববার গিলগিট-বালতিস্তানকে অস্থায়ী প্রদেশের মর্যাদা দেয়ার কথা ঘোষণা করেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

ওই ঘোষণার পরপরই ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, পাকিস্তান সরকার বেআইনিভাবে, জোর করে দখলে রাখা ভারতীয় ভূখণ্ডের একাংশের চরিত্রগত পরিবর্তনের যে চেষ্টা চালাচ্ছে, ভারত তা দৃঢ়ভাবে প্রত্যাখ্যান করছে।

শ্রীবাস্তব বলেন, ১৯৪৭ সালের চুক্তি অনুযায়ী, গিলগিট-বালতিস্তান ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু-কাশ্মীরের অবিচ্ছেদ্য অংশ। জোর করে দখল করে রাখা ওই অঞ্চলের কোনও কিছু পরিবর্তন করার অধিকার নেই পাকিস্তানের। এ ধরনের কাজ আসলে মানবাধিকার লঙ্ঘনের সমান।