logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৭:০৮
আপডেট : ২৯ অক্টোবর ২০২০, ২৩:৫৮

ইসলামাবাদে হিন্দু মন্দির স্থাপনে শীর্ষ আলেমদের সম্মতি

ইসলামাবাদে হিন্দু মন্দির স্থাপনে সম্মতি দিয়েছে পাকিস্তানের আলেমদের রাষ্ট্রীয় কাউন্সিল। তবে ব্যক্তিগত জায়গায় এ মন্দির প্রতিষ্ঠিত হতে হওয়ার রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয় না করার পক্ষেও মত দিয়েছে কাউন্সিল। শীর্ষ ইসলামি স্কলারদের সমন্বয়ে গঠিত এ কাউন্সিল মূলত শরীয়া সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে সরকারকে পরামর্শ দিয়ে থাকে। খবর আল জাজিরার। 

দেশটির প্রখ্যাত হিন্দু নেতা ও সংসদ সদস্য লাল মালি সরকারের এ সিদ্ধান্তের ব্যাপক প্রশংসা করেছেন। ইসলামাবাদে বর্তমানে প্রায় দশ লাখ মুসলিম বসবাসের বিপরীতে হিন্দুদের সংখ্যা তিন হাজার। তবে সেখানে সংখ্যালঘু এ সম্প্রদায়ের স্বীকৃত কোনো মন্দির নেই।   

কাউন্সিলের নেতারা বলেন, মৃত্যু পরবর্তী আচার আচরণ পালনে হিন্দুদের সাংবিধানিক অধিকার রয়েছে। তাই তাদের জন্য সুবিধাজনক স্থানে মন্দির স্থাপনে তাদের অনুমতি আছে। 

গেলো জুনে ইসলামাবাদে ইসলাম ধর্মীয় কয়েকজন নেতার হুমকির মুখে আকস্মিকভাবে হিন্দু মন্দির স্থাপন বন্ধের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। 

পরবর্তীতে হিন্দু মন্দির স্থাপনে সরকারি অর্থ ব্যয় করা যাবে কিনা, সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার ইসলামী কাউন্সিলের নেতাদের উপর ছেড়ে দেন। এমনকি মন্দির প্রতিষ্ঠায় ৬ লাখ ডলার রাষ্ট্রীয় অর্থ ব্যয়েরও প্রতিশ্রুতি দেন ইমরান খান। তবে বর্তমানে রাষ্ট্রীয় অর্থে নাকি ব্যক্তিগত ব্যয়ে এ মন্দির প্রতিষ্ঠা হবে সে বিষয়ে এখনো ধোঁয়াশা আছে বলেও আল জাজিরার প্রতিবেদনে জানানো হয়। 

বিভিন্ন সময়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তানে সব ধর্মের মানুষেরই ধর্মীয় আচার-আচরণ পালনের অধিকার আছে। 

এমএস 
 

RTVPLUS