logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

সুদানকে সন্ত্রাসী দেশের তালিকা থেকে বাদ দিচ্ছেন ট্রাম্প

Trump set to remove Sudan from state sponsors of terrorism list
সংগৃহীত
ক্ষতিপূরণের অর্থ পেলে সন্ত্রাসবাদীদের মদদদাতা দেশের তালিকা থেকে সুদানের নাম বাদ দেয়ার কথা জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, ক্ষতিপূরণের ৩৩৫ মিলিয়ন ডলার পরিশোধ করলে সন্ত্রাসবাদে মদদদাতা দেশের তালিকা থেকে মুছে যাবে সুদানের নাম।

এর জবাবে সুদানের প্রধানমন্ত্রী আব্দাল্লা হামদক বলেছেন, ওই অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্র তাৎক্ষণিক তা নিশ্চিত করেনি। কিন্তু টুইট বার্তায় সুদানের নাম সন্ত্রাসী দেশের তালিকা থেকে বাদ দেয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ট্রাম্প।

তিনি বলেন, বিরাট খবর। সুদানের নতুন সরকার যারা খুব উন্নতি করছে, তারা সন্ত্রাসবাদের শিকার এবং তাদের পরিবারগুলোকে ৩৩৫ মিলিয়ন ডলার দিতে রাজি হয়েছে। সুদান টাকা জমা দিলেই আমি কালোতালিকা থেকে তাদের নাম মুছে দেবো।

ট্রাম্প দাবি করছেন, দীর্ঘদিন পর মার্কিন জনগণ ন্যায়বিচার পেলো এবং এটি সুদানের জন্য একটি বড় পদক্ষেপ বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এ ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের বিদেশনীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেল।

আল-কায়েদার নেতা ওসামা বিন লাদেন সুদান সরকারের অতিথি হওয়ার পর ১৯৯৩ সাল থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের কালোতালিকাভুক্ত হয় দেশটি। পরবর্তীতে ১৯৯৮ সালে তাঞ্জানিয়া এবং কেনিয়ায় মার্কিন দূতাবাসে বোমা হামলা চালায় আল-কায়েদা।

ক্ষতিপূরণের এই অর্থ ওই হামলায় হতাহতদের জন্য ব্যয় করা হবে। পাশাপাশি এই অর্থ দেয়ার বিনিময়ে সুদানকে সন্ত্রাসী তালিকা থেকে বাদ দেবে যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্প বলেন, তাঞ্জানিয়া ও কেনিয়ায় হামলায় ২২০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছেল। ক্ষতিপূরণের অর্থ ‘সন্ত্রাসে ভুক্তভোগী ও তাদের পরিবারের’ জন্য ব্যয় করা হবে।

RTVPLUS