কাশ্মীরে গোলাগুলিতে দুই স্বাধীনতাকামী ও সেনার মৃত্যু

প্রকাশ | ০৭ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৪৩ | আপডেট: ০৭ অক্টোবর ২০২০, ২০:৪৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
ছবি সংগৃহীত।

আবারও অশান্ত হয়ে উঠেছে কাশ্মীর। সোপিয়ান জেলায় পুলিশ এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে স্বাধীনতাকামীদের। 

বুধবার (৭ অক্টোবর) সকালে পুলিশ জানিয়েছে, ওই ঘটনায় দুই জন স্বাধীনতাকামী নিহত হয়েছে। 

আরেক দিকে শ্রীনগরের বাইরের হাইওয়ের উপর পুলিশের সঙ্গে স্বাধীনতাকামীদের সংঘর্ষে দুই জন সিআরপিএফ জওয়ান মারা গেছেন।

মঙ্গলবার রাত থেকে সোপিয়ানের একটি এলাকায় স্বাধীনতাকামীদের সঙ্গে পুলিশ এবং নিরাপত্তা বাহিনীর গোলাগুলি শুরু হয়। বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে ওই এলাকা রাতেই ঘিরে ফেলে পুলিশ। দুই স্বাধীনতাকামীকে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়। কিন্তু তারা তা না শুনে পাল্টা গুলি চালাতে শুরু করে। পুলিশও গুলি চালাতে শুরু করে। এই ঘটনায় রাতভর গুলির যুদ্ধ চলার পরে ভোরের দিকে ওই দুই স্বাধীনতাকামীর মৃত্যু হয়। বুধবার সকালে এক টুইট বার্তায় বিষয়টি জানিয়েছে কাশ্মীর পুলিশ। 

পুলিশের ভাষ্য, শ্রীনগরে আরও এক বিজেপি নেতাকে মারার ছক কষেছিল স্বাধীনতাকামীরা। তাকে টার্গেটও করা হয়েছিল। কিন্তু তার আগেই খবর পেয়ে পুলিশ স্বাধীনতাকামীদের হত্যা করতে সক্ষম হয়েছে। টার্গেট হওয়া ওই বিজেপি নেতা সুস্থ আছেন।

একই দিন শ্রীনগরের কাছে হাইওয়ের উপরে আবারও নিরাপত্তাবাহিনীর উপর আক্রমণ চালায় স্বাধীনতাকামীরা। এতে সিআরপিএফ জওয়ানরা যখন রাস্তা খুলছিলেন তখন তাদের উপর অতর্কিত গাড়ি থেকে গুলি চালানো হয়। এই ঘটনায় দুই জন সিআরপিএফের মৃত্যু হয়। 

কাশ্মীরে গেল কয়েক মাসে একাধিকবার সিআরপিএফের উপর এভাবে গুলি চালিয়েছে স্বাধীনতাকামীরা। গত এক বছরে একাধিক পুলিশ, সেনা এবং রাজনৈতিক নেতা খুন হয়েছেন কাশ্মীরে। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, কেন্দ্রের নীতির কারণেই নতুন করে অশান্তি শুরু হয়েছে উপত্যকায়।

সূত্র- ডয়চে ভেলে 

এম