logo
  • ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭

নির্বাচনে ঝুঁকি না নিতেই বাংলাদেশকে পেঁয়াজ দিচ্ছে না মোদি সরকার!

Modi government is not giving onion to Bangladesh without taking any risk in the election!
ফাইল ছবি
গেল ছয় মাসে ভারতের পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম প্রায়  বেড়েছে দু’গুণ। সামনেই বিহারের বিধানসভা ভোট এবং মধ্যপ্রদেশের গুরুত্বপূর্ণ উপনির্বাচন। তার আগে পেঁয়াজের অগ্নিমূল্যের খেসারত দিতে নারাজ বিজেপি নেতৃত্ব। সে কারণেই কোনও ঝুঁকি না নিয়ে গত সোমবার রাতে পেঁয়াজের রপ্তানির উপরে সম্পূর্ণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে নরেন্দ্র মোদির সরকার।

নয়াদিল্লি আচমকা পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় বাংলাদেশের বাজারে এক লাফে পেঁয়াজের দাম ৫০ শতাংশ বেড়ে গেছে। সোমবারের এই সিদ্ধান্তের পরে বাংলাদেশ সরকারের তরফে দিল্লিতে বিদেশ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।

মোদি সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যুক্তি, দেশে পেঁয়াজের বৃহত্তম পাইকারি বাজার লাসালগাঁওতে মার্চ মাসে ১৫০০ টাকা কুইন্টাল দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল। সেপ্টেম্বরে তা ৩ হাজার টাকায় পৌঁছেছে। ফলে ভবিষ্যতে খুচরো বাজারে এর আঁচ পড়বে। খুচরো বাজারে এখন ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। জুন-জুলাইয়ে তা ২০ টাকা ছিল। এমনিতেই খুচরো বাজারে মূল্যবৃদ্ধির হার সাড়ে ৬ শতাংশের উপরে।

কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে মহারাষ্ট্র, গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ, কর্নাটকের পেঁয়াজ চাষিদের মধ্যেও ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। তাদের যুক্তি, যখনই তারা একটু ভালো দাম পেতে শুরু করছিলেন, তখনই সরকার পেঁয়াজের রপ্তানি বন্ধ করে দিল। ফলে দাম ফের পড়ে যাবে। 

কিন্তু মোদি সরকার বিহার ভোটের আগে পেঁয়াজের দাম নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে নারাজ। ক্যাবিনেট সচিবের নেতৃত্বে সচিবদের গোষ্ঠী পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পেঁয়াজের দাম হাতের নাগালের বাইরে চলে যাওয়ার আগেই হস্তক্ষেপ করা হবে। সূত্র: আনন্দবাজার।

আরও পড়ুন 

এসএএস

RTV Drama
RTVPLUS