logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৭ আশ্বিন ১৪২৭

মুঘল বাদশাহরা কখনোই ভারতের নায়ক হতে পারেন না: যোগী আদিত্যনাথ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

|  ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২৩:২১ | আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:১৮
মুঘল বাদশাহরা কখনওই ভারতের নায়ক হতে পারেন না: যোগী আদিত্যনা
মুঘল আমলের নানা স্থাপত্য ও পুরাকীর্তি ছড়িয়ে আছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে ।। ছবি: সংগৃহীত
মুঘল বাদশাহরা কখনওই ভারতের নায়ক হতে পারেন না- এই মন্তব্য করে ফের নতুন বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী যোগী অদিত্যনাথ।

আগ্রায় 'মুঘল থিমে' আধারিত একটি মিউজিয়ামের নাম বদলে মারাঠা নায়ক শিবাজীর নামে রাখার পর যোগী অদিত্যনাথ এ মন্তব্য করেন।

মুসলিম শাসনের চিহ্ন আছে, এর আগেও আদিত্যনাথের সরকার রাজ্যে এমন অনেক জায়গার নাম পাল্টে দিয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজেও সরাসরি মুঘল শাসকদের আক্রমণ করে বিবৃতি দিয়েছেন। আর ভারতের ইতিহাসবিদরা বলছেন, দেশের সংখ্যালঘু মুসলিমদের কোণঠাসা করার জন্য সুপরিকল্পিত নকশারই অংশ এটি।

চার বছর আগে আগ্রায় মুঘল আমলের নানা স্মারক ও নিদর্শন নিয়ে একটি মিউজিয়াম তৈরির জন্য শিলান্যাস করেছিলেন রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। কিন্তু সোমবার বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ওই মুঘল মিউজিয়ামের নামকরণ করা হবে দাক্ষিণাত্যের মারাঠা রাজা শিবাজীর নামে - যিনি মুঘলদের বিরুদ্ধে মরণপণ যুদ্ধ করে গেছেন। এর আগেও আদিত্যনাথ দাবি করেছিলেন, মুঘলরা ভারতে হানা দেয়ার আগে হিন্দুদের আর্থিক শক্তি সারা দুনিয়ার মোট অর্থনীতির এক তৃতীয়াংশেরও বেশি ছিল, কিন্তু তার পর থেকেই তা একেবারে কমতে শুরু করে।

ভারতের ইতিহাস যাকে ‘আকবর দ্য গ্রেট’ নামে চেনে সেই বাদশাহ আকবরও ‘মোটেও কোনও গ্রেট নন’ বলেও মন্তব্য করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

রাজপুত নায়ক মহারানা প্রতাপকে উদ্ধৃত করে তিনি গত বছরই বলেছিলেন, বিধর্মী ও বিদেশি মুঘলদের কিছুতেই ভারতের বাদশাহ হিসেবে মানা যায় না। তিনি দাবি করেছিলেন আকবরের চেয়ে রানা প্রতাপ ছিলেন অনেক বেশি মহান শাসক ও যোদ্ধা। এতেই শেষ নয়, আদিত্যনাথ সরকার এলাহাবাদ শহরের নাম পাল্টে রেখেছে প্রয়াগরাজ, তার আমলেই রাজ্যের আইকনিক মুঘলসরাই রেল স্টেশনের নতুন নামকরণ করা হয়েছে বিজেপির তাত্ত্বিক নেতা দীনদয়াল উপাধ্যায়ের নামে।

ভেঙে ফেলা বাবরি মসজিদের জায়গায় রামমন্দির নির্মাণের কাজও শুরু হয়েছে মহাধূমধামে।

ভারতের নামী ঐতিহাসিক ও 'দ্য মুঘলস অব ইন্ডিয়া' বইয়ের লেখক হরবনস মুখিয়া বলছিলেন, মুঘলদের উত্তরাধিকার অগ্রাহ্য করার এই সচেতন চেষ্টার মধ্যে দিয়ে আসলে মুসলিমদেরই অপরাধী সাজানোর চেষ্টা করছে বিজেপি। যেকোনো মেজরিটারিয়ান শক্তির ঠিক এই উদ্দেশ্যটাই থাকে, দেশের সংখ্যালঘুদের অপরাধী সাজাও, তাদের রাক্ষস প্রতিপন্ন করো।
ইতিহাসে আমরা এ জিনিস বারবার ঘটতে দেখেছি, সংখ্যালঘুদের শত্রু বানানো হয়েছে এবং 'দ্য আদার' হিসেবে প্রান্তিক করে তোলা হয়েছে।

তিনি বলেন,  ভারতের শাসকরা এজন্যই আজ মুঘলদের ইতিহাসে ফিরে গিয়ে বলার চেষ্টা করছেন মুসলিমরা বরাবরই আসলে এরকম, তারা লুণ্ঠনকারী, তারা ভিনদেশি, তারা এই, তারা ওই এবং তারাই সেই 'দ্য আদার'। সূত্র: বিবিসি বাংলা।

এসএস

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৩৪৪২৬৪ ২৫০৪১২ ৪৮৫৯
বিশ্ব ৩,০১,২৬,০২০ ২,১৮,৭৪,৯৫৭ ৯,৪৬,৭১২
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • আন্তর্জাতিক এর সর্বশেষ
  • আন্তর্জাতিক এর পাঠক প্রিয়