বৈরুতের বিস্ফোরণে আমাদের হাত নেই: ইসরায়েল

প্রকাশ | ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৩:৩৩ | আপডেট: ০৫ আগস্ট ২০২০, ১৪:২১

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
ছবি- সংগৃহীত

লেবাননের রাজধানী বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০০ জনে দাঁড়িয়েছে। আহত হয়েছে চার হাজারের বেশি মানুষ। মঙ্গলবার বন্দর এলাকায় ওই ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনার সঙ্গে কোনও ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই বলে জানিয়েছে ইসরায়েল।

ইসরায়েলের গণমাধ্যম হারিটজ জানাচ্ছে, দেশটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে এ ঘটনায় তাদের কোনও হাত নেই।  

চলতি সপ্তাহে লেবানন সীমান্তে হামলা চালানোর পর এমন বক্তব্য এলো মধ্যপ্রাচ্যের বিতর্কিত দেশটির পক্ষ থেকে।

এদিকে যে কোনও সময় লেবাননকে মানবিক ও চিকিৎসা সহায়তা দিতে প্রস্তুত রয়েছে ইসরায়েল।

দেশটি প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গেঞ্জ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী গাবি আশকেনাজি জানিয়েছেন, ইসরায়েল আন্তর্জাতিক সুরক্ষা এবং কূটনৈতিক চ্যানেলগুলোর মাধ্যমে লেবাননের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে। লেবানন সরকারকে চিকিৎসা ও মানবিক সহায়তার প্রস্তাবও দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বৈরুতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনার পর দুই সপ্তাহের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন প্রেসিডেন্ট মিশেল আউন। 

তিনি জানান, ঘটনাস্থলের কাছেই থাকা একটি ওয়্যারহাউজে দুই হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট অনিরাপদ অবস্থায় মজুদ ছিল। যা থেকে বিস্ফোরণের সূত্রপাত।  

বিস্ফোরণের কারণ জানতে তদন্ত চলছে। দায়ীদের সর্বোচ্চ শাস্তির কথা বলেছে দেশটির সুপ্রিম প্রতিরক্ষা পরিষদ। 

জরুরি তহবিল থেকে ১ বিলিয়ন লিরা বরাদ্দের ঘোষণাও দিয়েছেন লেবানিজ প্রেসিডেন্ট। বুধবার থেকে তিনদিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালিত হচ্ছে দেশটিতে। 

নিহতদের মধ্যে মিজান ও মেহেদি হাসান নামের দুই প্রবাসী বাংলাদেশিও রয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বন্দরে থাকা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ বিএনএস বিজয়। নৌবাহিনীর ১৯ সদস্য আহত হয়েছে। এদের মধ্যে দুইজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানায় লেবাননের বাংলাদেশ দূতাবাস। 

ওয়াই/এ