logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০২ এপ্রিল ২০২০, ১৯ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে মৃত্যু ৯৫০, মোট ১০ হাজার, নতুন আক্রান্ত ৮ হাজারের বেশি: বৃহস্পতিবার জানিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ভারতে আক্রান্ত ২ হাজার ছুঁই ছুঁই, একদিনে ৯ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৩১, মোট মৃত্যু: এনডিটিভি। বিশ্বজুড়ে একদিনে এক লাখের বেশি আক্রান্ত, ৬ হাজার মৃত্যু, এই মৃত্যুর অর্ধেকের বেশিই স্পেন, ইতালি ও যুক্তরাষ্ট্রে: বিবিসি। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে দুজন ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন: আইইডিসিআর। যুক্তরাজ্যে ১ দিনে শুধু বুধবার ৫৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে, আক্রান্ত ৪৩২৪, মোট মৃতের সংখ্যা ২৩৫২, মোট আক্রান্ত ২৯৪৭৪ জন: এএফপি। গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি মৃত্যু দেখল আমেরিকা- ৮৬৫ জন, মোট মৃত্যু ৩ হাজার ৮৭৩, আক্রান্তের পরিসংখ্যানেও প্রথম স্থানে আমেরিকা- এক লাখ ৭৫ হাজার: ডয়েচে ভেলে। ইউরোপে মৃতের সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়েছে, শুধু স্পেন ও ইতালিতেই মৃত্যু ২০ হাজারের বেশি, ইতালিতে ১২৪২৮, যুক্তরাজ্যে ১৭শ ছাড়িয়েছে: বিবিসি।

বিদেশি টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন, সংকটে দেশি চ্যানেলগুলো (ভিডিও)

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০:৩৯ | আপডেট : ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৮:৫৭
বিশ্বের কোনো দেশে বিজ্ঞাপনসহ বিদেশি টেলিভিশন চ্যানেল সম্প্রচারের সুযোগ না থাকলেও, বাংলাদেশে আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তা দিব্যি চলছে। বছরের পর বছর এভাবে চললেও তা বন্ধে কার্যকর কোনো উদ্যোগই নিচ্ছে না সরকার। এতে অনেক বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দিয়ে বাংলাদেশের বাজার কব্জায় নিচ্ছে। এভাবে ৩০ থেকে ৪০ শতাংশ বিজ্ঞাপন বিদেশে চলে যাওয়ায় চরম আর্থিক সংকটে ধুঁকছে দেশি চ্যানেলগুলো।

বিজ্ঞাপনসহ বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচার বাংলাদেশে নতুন না হলেও এর ক্ষতিকর প্রভাব দিন দিনই বাড়ছে। অথচ বিজ্ঞাপনসহ বিদেশি চ্যানেল সম্প্রচার দেশের প্রচলিত আইনে দণ্ডনীয় অপরাধ।

‘ক্যাবল টেলিভিশন নেটওয়ার্ক পরিচালনা আইন ২০০৬’-এ, দেশের দর্শকদের জন্য বিদেশি টেলিভিশন চ্যানেলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন প্রচার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আইনটি প্রণয়নের এক যুগের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও, বাস্তব অবস্থা, ‘কাজীর গরু কেতাবে আছে, গোয়ালে নেই’-এর মতো। একটি অসাধুচক্র আইনটিকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। যার ভয়ংকর প্রভাব পড়ছে দেশি চ্যানেলগুলোর ওপর।

টেলিভিশন মার্কেটিং অ্যসোসিয়েশনের সেক্রেটারি মোঃ আনিসুর রহমান তারেক বলেন, চ্যানেলগুলোর একমাত্র আয় বিজ্ঞাপনের ওপর নেতিবাচক প্রভাবের কারণেই চরম অর্থ সংকটে পড়েছে দেশি চ্যানেলগুলো।

চ্যানেলগুলোর আর্থিক সংকট কাটাতে সরকারকে কার্যকর ভূমিকা নেয়ার আহ্বান জানালেন গণমাধ্যম সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, বিদেশি বিজ্ঞাপন বন্ধের জন্য মাঝে-মধ্যে দু-একটি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেই দায়িত্ব শেষ করেছে তথ্য মন্ত্রণালয়। সরকারি তৎপরতা ঢিলেঢালা হওয়ায় অসাধুচক্রও অবৈধভাবে বিজ্ঞাপনসহ বিদেশি চ্যানল সম্প্রচার অব্যাহত রেখেছে।

দেশি চ্যানেলগুলোর আর্থিক সুরক্ষা ও কর্মীদের চাকরির নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হলে, দেশের টেলিভিশন চ্যানেলগুলো অচিরেই মুখ থুবড়ে পড়বে বলে আশঙ্কা খাত সংশ্লিষ্টদের।

পি

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৫৬ ২৬
বিশ্ব ৯৬২৯৭৭ ২০২৯৩৫ ৪৯১৮০
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • টেলিভিশন এর সর্বশেষ
  • টেলিভিশন এর পাঠক প্রিয়