logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন

  ০৫ জানুয়ারি ২০২০, ১৩:২১

দেশে ফিরেছেন শাবানা

শাবানা
ছবি সংগৃহীত
কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী শাবানা দেশে ফিরেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সি শহরে স্থায়ী হয়েছেন দীর্ঘদিন। তবে সুযোগ পেলেই দেশে আসেন শাবানা। ২৭ ডিসেম্বর স্বামী চিত্রপ্রযোজক ওয়াহিদ সাদিককে নিয়ে দেশে ফিরেছেন তিনি। জানা গেছে, পারিবারিক কিছু কাজের জন্যই শাবানার এই সফর।

পারিবারিক নাম আফরোজা সুলতানা রত্মা। চলচ্চিত্রে তিনি শাবানা নামেই সুপরিচিত। মাত্র আট বছর বয়সে সিনেমায় নাম লেখান শাবানা। এহতেশাম পরিচালিত ‘নতুন সুর’ নামের ছবিতে তিনি শিশুশিল্পী হিসেবে কাজ করেন। এরপর ‘চকোরী’ ছবিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় শুরু করেন। বাংলা ও উর্দু ভাষায় নির্মিত ‘চকোরী’ ছবি ব্যবসা সফল হয়। এরপর থেকে শাবানাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি।

তিন যুগের অভিনয়জীবনে শাবানা অভিনীত সিনেমার সংখ্যা ২৯৯টি। ক্যারিয়ারে নাদিম, রাজ্জাক, আলমগীর, ফারুক, জসীম, সোহেল রানার সঙ্গে জুটি বেঁধে শাবানা উপহার দেন জনপ্রিয় অনেক ছবি।

তার উল্লেখযোগ্য ছবিগুলোর মধ্যে আছে,  ‘চকোরী’, ‘ভাত দে’, ‘রাঙা ভাবী’, ‘অবুঝ মন’, ‘ছুটির ঘণ্টা’, ‘দোস্ত দুশমন’, ‘সত্য মিথ্যা’, ‘রাঙা ভাবী’, ‘বাংলার নায়ক’, ‘ওরা এগারো জন’, ‘বিরোধ’, ‘আনাড়ি’, ‘সমাধান’, ‘জীবনসাথী’, ‘মাটির ঘর’, ‘লুটেরা’, ‘সখি তুমি কার’, ‘কেউ কারো নয়’, ‘পালাবি কোথায়’, ‘স্বামী কেন আসামি’, ‘দুঃসাহস’, ‘পুত্রবধূ’, ‘আক্রোশ’ ও ‘চাঁপা ডাঙার বউ’ ইত্যাদি।

অভিনয়ের স্বীকৃতি হিসেবে শাবানা দশবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৯৭ সালে শাবানা অজানা কারণে হঠাতই বিদায় নেন চলচ্চিত্র থেকে। স্বামী সন্তানদের নিয়ে ২০০০ সাল থেকে সপরিবারে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে বসবাস করছেন তারা। শেষবার ২০১৭ সালে ঢাকায় এসেছিলেন শাবানা।

এম

RTVPLUS