অল স্টারস ড্যাফোডিলের ‘নবমে নবোদয়’

প্রকাশ | ২৫ জুলাই ২০১৯, ১৬:৪৮ | আপডেট: ২৫ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭

গাজী আনিস, আরটিভি অনলাইন
পরিবেশনা শেষে অল স্টারস ড্যাফোডিল ক্লাবের সদস্যরা

সময় তখন পড়ন্ত বিকেল। সূর্যের আলোর তীব্রতা ক্রমশ কমতে শুরু করেছে। কিন্তু আলোর কমতি নেই ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭১ মিলনায়তনে। অল স্টারস থিয়েটার ক্লাবের তারার আলোয় আলোকিত হচ্ছে প্রতিটি মুহূর্ত। শিল্পীদের পরিবেশনার সঙ্গে সঙ্গে দর্শকদের উচ্ছ্বাস উচ্চস্বরে ছড়িয়ে যাচ্ছে ক্যাম্পাস জুড়ে। ২৪ জুলাই সন্ধ্যায় এমনই চিত্র দেখা যায় রাজধানীর ধানমন্ডির সোবহানবাগে অবস্থিত ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটির সিটি ক্যাম্পাসে।

অল স্টারস ড্যাফোডিল বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সারির একটি থিয়েটার ক্লাব। একই সঙ্গে সংস্কৃতির মাধ্যমে সামাজিকভাবে মানুষকে আলোর পথে আহ্বান করে। বর্ণবাদ বিরোধী, জাতি বৈষম্যহীন এক নতুন পৃথিবীর স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে চলছে এই সংগঠনের একদল নবীন তারকা।

বুধবার (২৪ জুলাই) পূর্ণ হলো ‘অল স্টারস’র এই পথ চলার নয় বছর। দশম বছরে পদার্পণ উপলক্ষে সংগঠনটি গতকাল আয়োজন করে ‘নবমে নবোদয়’ শিরোনামের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। আয়োজন ছিল অল স্টারসের তারকাদের নাটক, নাচ, গান, আবৃত্তি এবং যন্ত্র সংগীতের পরিবেশনায় মুখরিত। অনুষ্ঠানে হাসানুল হুমায়ুন রনির রচনা ও নির্দেশনায় রুদ্রপ্রয়োগ এবং আহমেদ মেরাজের রচনা ও নির্দেশনায় আমার বনলতা নামে দুইটি নাটক পরিবেশিত হয়।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দ মিজানুর রহমান রাজু, ডিরেক্টর অব সুডেন্টস অ্যাফেয়ার্স ডি আই ইউ, ইউনিভার্সিটির শিক্ষক এজাজ-উর-রহমান সজল, কামরুজ্জামান দিদার, সুজন নাজিরসহ অনেকে।

অনুষ্ঠানের মূল পরিবেশনা শেষে ঘোষণা করা হয় ২০১৯-২০ সালের নতুন কমিটির তালিকা। ইলিয়াস নবী ফয়সালকে সভাপতি ও মুশফিকুর রহমানকে সাধারণ সম্পাদক করে ক্লাবটির নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। দায়িত্ব হস্তান্তর করেন পূর্ববতী কমিটির সভাপতি আশিকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মেহদাদ তকি সৃজন।

----------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: যৌতুকের টাকার জন্য স্ত্রীর কিডনি বিক্রি!
----------------------------------------------------------

২০১০ সালে কয়েকজন নবীন তারকা নিয়ে যাত্রা শুরু করে অল স্টারস ড্যাফোডিল। ইতোমধ্যে ক্লাবের সদস্যরা দেশ এবং দেশের বাহিরে বিভিন্ন প্রান্তে নাটক পরিবেশন করে কুড়িয়েছে ব্যাপক সুনাম।

সংগঠনের সদস্যরা নিজস্ব পরিবেশনা নিয়ে ইতোমধ্যে মঞ্চায়ন করেছে আন্ত বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য উৎসব, চুয়েট তারুণ্য উৎসব, বুয়েট কুড়িতে কণ্ঠ্য, কুয়েট ডান্স ফেস্ট, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় ড্যান্স ফেস্ট, বাতিঘর নাট্য- উৎসব, টেড-এক্স ড্যাফোডিলসহ বড় বড় উৎসবে। পরিবেশনা করেছে ভারতের ভেলরে। পেয়েছে বেশ কিছু পুরস্কার।

জিএ/এম