• ঢাকা বুধবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৮ ফাল্গুন ১৪২৫

মঞ্চে আসছে জ্যোতি সিনহার ‘হ্যাপি ডেইজ’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:১৩
মণিপুরি থিয়েটার প্রযোজিত ‘কহে বীরাঙ্গনা’ নাটকে একক অভিনয় করে খ্যাতি কুড়িয়েছেন জ্যোতি সিনহা। এবার নতুন একটি একক নাটকে অভিনয় করছেন এই অভিনেত্রী। ফরাসি দূতাবাসের প্রযোজনায় মঞ্চে আসছে নতুন নাটক ‘হ্যাপি ডেইজ’। এক ঘণ্টা সময়ের এই নাটকে একক অভিনয় করবেন জ্যোতি সিনহা।

মঞ্চ, আলো, সঙ্গীত পরিকল্পনা ও নির্দেশনা দিয়েছেন শুভাশিস সিনহা। ‘কহে বীরাঙ্গনা’র পর এটি জ্যোতির দ্বিতীয় একক-অভিনয় বা মনোড্রামা।

নাটকটির মঞ্চ নির্মাণ করেছেন শাহনাজ জাহান, সহযোগী: আসফিকুর রহমান। আলোক প্রক্ষেপণ: আসলাম অরণ্য, সহযোগী: আরিফ সাকিল। সঙ্গীত প্রক্ষেপণ: হুমায়ুন আজম রেওয়াজ, সহযোগী: শর্মিলা সিনহা ও স্বর্ণালী সিনহা। স্টেজ ম্যানেজার: পারভেজ সরকার।

স্যামুয়েল বেকেটের লেখা ‘হ্যাপি ডেইজ’ বাংলা অনুবাদ করেছেন কবীর চৌধুরী ও শাহীন কবীর। নাটকটির অভিযোজন ও সম্পাদনা করেছেন শুভাশিস সিনহা ও জ্যোতি সিনহা। ফরাসি দূতাবাসের প্রযোজনায় এ নাটকে সহযোগিতা করছে অঁলিয়স ফ্রসেস ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি। আগামী ৩১ জানুয়ারি জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে নাটকটির কারিগরি এবং এক ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যা সাতটায় একই হলে দর্শনীর বিনিময়ে নাটকটির উদ্বোধনী মঞ্চায়ন হবে।

অ্যাবসার্ড নাটকের জন্য বিখ্যাত, ‘ওয়েটিং ফর গডো’ খ্যাত নোবেলবিজয়ী নাট্যকার স্যামুয়েল বেকেটের লেখা আলোচিত নাটক ‘হ্যাপি ডেজ’। বেকেট জন্মসূত্রে আইরিশ হলেও জীবনের পুরো সৃজনকালটাই কাটিয়েছেন ফ্রান্সে।

‘হ্যাপি ডেইজ’ নাটকে উইনি নামের এক নারীর নিঃসঙ্গ কিন্তু স্বপ্নময় জীবনের দৈনন্দিন সব ছেলেখেলার মতো ক্রিয়াকলাপের মধ্য দিয়ে মানুষের এক অভিনব মানসপটকে আঁকা হয়েছে। পুরো নাটকে উইনি তার স্বামী উইলির সঙ্গে অনর্গল কথা বলে যায় প্রলাপের মতো। নস্টালজিয়া, অভিযোগ, আকাঙ্ক্ষা কিন্তু সবকিছু ছাপিয়ে তার শরীর-মনের তীব্র প্রেমাকুতি।

মূল টেক্সটে দু’ একটি সংলাপের মধ্য দিয়ে অথর্ব, অক্ষম পুরুষ-চরিত্র উইলি উপস্থিত থাকলেও এ প্রযোজনায় তাকে অনুপস্থিত রাখা হয়েছে। কিন্তু স্ত্রী উইনির ঘণ্টাব্যাপী কথা-ক্রিয়ার মধ্যে সে বর্তমান থাকে। সে জীবিত নাকি মৃত, সে প্রশ্নের মীমাংসাও হয়তো হয় না। কিন্তু উইনি তাকে নিয়ে জীবনের এক আনন্দময় দিনের স্বপ্ন দেখে চলে, তাকে নিজের মতো করে সাজিয়ে চলে, যা কোনোদিনই তার জীবনে আসে না।

এম/জেবি 

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়