Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

আরটিভি নিউজ

  ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:০১
আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৬:৩০

দুর্নীতির দায়ে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের মহাসচিব ও অর্থ সম্পাদককে অব্যাহতি

দুর্নীতির দায়ে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের মহাসচিব ও অর্থ সম্পাদককে অব্যাহতি

বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সেক্রেটারি জেনারেল কামাল বায়েজীদ ও অর্থ সম্পাদক রফিক উল্লাহ সেলিমকে আর্থিক অনিয়ম, দুর্নীতি, সাংগঠনিক স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ এনে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় পরিষদ।

একইসঙ্গে কামাল বায়েজীদ আর কখনোই ফোডারেশনে নির্বাচন করতে পারবেন না বলে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। রফিক উল্লাহ সেলিমের দলের সদস্য পদ বাতিল করা হয়েছে। গেল শনিবার (২২ জানুয়ারি) গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন থেকে পাঠানো একই সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত বছরের মার্চ থেকে কেন্দ্রীয় পরিষদ কর্তৃক গঠিত উপ-কমিটি উক্ত দুইজন সম্পাদকের কাছে সমস্ত আয়-ব্যয়ের হিসাব চেয়ে আসছে। কিন্তু তারা নানান অজুহাতে হিসাব দিতে গড়িমসি করে। এমনকি চূড়ান্তভাবে অর্থের হিসাব দিতেও ব্যর্থ হয়। এরই পরিপ্রেক্ষিতে এই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় ফেডারেশন।

ফেডারেশনের প্রচার সম্পাদক মাসুদ আলম বাবু গণমাধ্যমকে জানান, শনিবার (২২ জানুয়ারি) শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার সেমিনার রুমে পরিষদের ৪১ সদস্যের উপস্থিতিতে সম্মিলিতভাবে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সভায় গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনে চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী, লাকী ইনাম, শাহাদাত হোসেন খান, রাজ্জাক মুরাদসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

কামাল বায়েজীদের বিরুদ্ধে গত তিন বছরে ব্যয় হওয়া এক কোটি ২৪ লাখ ৫১ হাজার ৩শ’ ৭৩ টাকার হিসাব দিতে না পারা ও সংগঠনের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কেন্দ্রীয় পরিষদকে না জানিয়ে চেকের মাধ্যমে নিজের অ্যাকাউন্টে সংগঠনের টাকা ট্রান্সফার করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে কামাল বায়েজীদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তিন বছর আগে যখন ফেডারেশনের দায়িত্ব নিই, তখন সংগঠনের ১০ লাখ টাকা ঋণ ছিল। এ সময় বিভিন্ন অনুষ্ঠান করার জন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে ৭ লাখ টাকা খরচ করেছি। এ টাকা আমি সংগঠন থেকে নিয়েছি। সেটা আমার অ্যাকাউন্টে নিয়েছি। প্রয়োজনীয় কাগজপত্রও রয়েছে।’ তিনি পরিষদের সভায় উপস্থিত ছিলেন না। তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ উঠেছে, তা তাকে আগে জানানো হয়নি বলেও দাবি করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত তিন বছর ধরে সেক্রেটারি জেনারেল একক সিদ্ধান্তে ফেডারেশনকে পরিচালনা করেছেন। সংগঠনের গঠনতন্ত্রের শব্দ, ধারা-উপধারা নিজের মতো পরিবর্তন করেছেন। কেন্দ্রীয় পরিষদ ও নির্বাহী পরিষদের গৃহীত সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন না করে তার নিজের মতো করে সংগঠন পরিচালিত করেছেন।

এদিকে আর্থিক অনিয়ম, দুর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতের দায়ে সম্পাদক (অর্থ) রফিক উল্লাহ সেলিমকে তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিয়ে ৩০ দিনের মধ্যে যাবতীয় টাকার হিসাব বুঝিয়ে দেওয়ার সময়সীমা বেঁধে দিয়েছে পরিষদ।

চলতি বছরের মে মাসে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে ভোটে নতুন কমিটি গঠিত হবে। এর আগ পর্যন্ত সেক্রেটারি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করবেন অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল চন্দন রেজা ও অর্থ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. চঞ্চল সৈকত।

উল্লেখ্য, কামাল বায়েজীদ নাট্য সংগঠন ঢাকা থিয়েটার ও রফিক উল্লাহ সেলিম ঢাকা নান্দনিকের সদস্য।

এনএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS