Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৬ জানুয়ারি ২০২২, ২ মাঘ ১৪২৮

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:২০
আপডেট : ১৪ জানুয়ারি ২০২২, ২০:৩৭
discover

ঐন্দ্রিলার রূপ দেখে শুভশ্রী বললেন 'হট'

ঐন্দ্রিলার রূপ দেখে শুভশ্রী বললেন 'হট'

কলকাতার টেলিভিশন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা সেন। টালিউড অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার সঙ্গে তার প্রেমের খবর সকলের জানা। বিভিন্ন সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের নানা মুহূর্তের ছবি শেয়ার করে ভালোবাসার জানান দেন এই লাভ বার্ডস।

লকডাউনে বাড়িতে থেকে মুটিয়ে গিয়েছিলেন ঐন্দ্রিলা। ওজন বেড়ে দাঁড়িয়েছিল ৭১ কেজিতে। বাড়তি ওজন ঝরিয়ে সংখ্যাটা নামিয়ে এনেছেন ৫৬-এর কোঠায়। মেদহীন ছিপছিপে চেহারায় তাক লাগাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। তার এই পরিবর্তনে আপ্লুত প্রেমিক অঙ্কুশ হাজরা।

প্রেমিকাকে নিয়ে তিনি কতটা গর্বিত, দিন কয়েক আগেই তা জানিয়েছেন অঙ্কুশ। প্রিয় মানুষটির ছিপছিপে চেহারার একটি ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন তিনি। শুধু অঙ্কুশ নয়, নেটিজেনরাও ঐন্দ্রিলার পরিবর্তিত লুক দেখে প্রশংসা করেছেন। এমনকি টালিউডের প্রথম সারির সুন্দরী অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলিও কমেন্ট বক্সে লিখেছেন ‘হট’। শুভশ্রীর এ মন্তব্যের জবাবে অঙ্কুশ লিখেছেন, ‘প্রচন্ড’।

এখানেই শেষ নয়। তাদের কমেন্ট আলাপে যোগ দেন ঐন্দ্রিলা। তিনি লেখেন, ‘হটনেস ছড়ালাম। তুমি দ্রুত সুস্থ হও।’

অঙ্কুশের পোস্ট করা ঐন্দ্রিলার সেই ছবিতে মন্তব্য করেছেন টলিউডের আরেক আলোচিত অভিনেতা বিক্রম চ্যাটার্জি। তিনি লিখেন, ‘তাড়াতাড়ি কালা টিকা লাগা। বাচ্চা মেয়েদের এত হট হতে নেই।’

তবে ঐন্দ্রিলার মেদ ঝরানোর জার্নি খুব সহজ ছিল না। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গত জুন মাস থেকে শরীরচর্চা শুরু করি। প্রথম দিকে খুবই কষ্ট হতো। মিষ্টি খাওয়া একেবারেই ছেড়ে দিয়েছি। অন্যান্য খাবারও খুব কম খেতাম। প্রথম দুই মাস কোনো ওজন কমেনি। সেই দুই মাস কঠিন শরীরচর্চার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করেছিলাম।’

নিজের বর্তমান চেহারা নিয়ে খুশি ঐন্দ্রিলা। তার ভাষায়, ‘ওজন কমিয়ে আমি খুবই খুশি। অনেকেই বলছেন আমার চোখ-নাক-মুখ বদলে গেছে। আমি নাকি প্লাস্টিক সার্জারি করিয়েছি। শরীরের মেদ কমলে মুখেরও মেদ কমে। ফলে চোখ-নাকের আকৃতিরও পরিবর্তন হয়েছে বলে মনে হয়।’

প্রসঙ্গত, এক যুগেরও বেশি সময় ছোটপর্দায় কাজ করেছেন ঐন্দ্রিলা। গত বছর ‘ম্যাজিক’ সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন। এরপর একাধিক সিনেমার প্রস্তাব পেলেও ওজন বেশি হওয়ার কারণে তিনি রাজি হননি। মুটিয়ে যাওয়া চেহারার জন্য দুই-তিনটি সিনেমা ছেড়ে দেন তিনি।

এনএস/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS