Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর ২০২১, ১৪ কার্তিক ১৪২৮

ফুটপাত থেকে পুজোর শপিং করলেন অভিনেত্রী (ভিডিও)

ফুটপাত থেকে পুজোর শপিং করলেন অভিনেত্রী (ভিডিও)
ইন্দ্রাণী হালদার

চলছে উৎসবের মৌসুম। পুজোর আগমনী গানে চারপাশ মুখরিত। এর মাঝেই পুজোর কেনাকাটাও শুরু হয়ে গেছে পুরোদমে। কলকাতার অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদারও তার কেনাকাটা সেরে ফেলেছেন। তবে অনলাইন কিংবা অত্যাধুনিক শপিং মল নয়, গড়িয়াহাটের ফুটপাথ থেকে পুজোর শপিং করেছেন বাংলা টেলিভিশনের ‘শ্রীময়ী’।

ভারতীয় চ্যানেল স্টার জলসার ফেসবুক পেজে শেয়ার করা হয়েছে একটি ভিডিও। সেখানেই পুজোর শপিংয়ের গল্প জানিয়েছেন অভিনেত্রী নিজেই।

সেখানে ইন্দ্রাণী জানান, হঠাৎ করে ‘শ্রীময়ী’র শুটিং তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায়। হাতে কিছুটা সময় পেয়ে গড়িয়াহাটে যান তিনি। করোনাকালে মুখে মাস্ক থাকায় ভেবেছিলেন, কেউ হয়তো তাকে চিনতে পারবেন না। তবে মুখে মাস্ক থাকলেও এই অভিনেত্রীকে চিনতে গড়িয়াহাটের মানুষদের অসুবিধা হয়নি। ফুটপাতের দোকানদাররাও তাকে 'দিদি' বলে সম্বোধন করেন।

তাদের মধ্যেই একজন বলে বসেন, ইন্দ্রাণী হয়তো শুধু নামী দোকান থেকেই পোশাক কেনেন। তার উত্তরে ইন্দ্রাণী হালদার জানান, এমন কোনও ব্যাপার তার নেই। পছন্দ হলে ৫০০ টাকার শাড়িও পরেন তিনি। তারপর অভিনেত্রী ঠিক করেন, গড়িয়াহাটের ফুটপাথের পাঁচটি দোকান থেকে ৫টি শাড়ি কিনবেন। নিজের জন্য এবং ‘শ্রীময়ী’র শুটিংয়ে পরার জন্য সেগুলো কেনেন তিনি। শ্রীময়ীর ভাষ্য, প্রত্যেকটি শাড়ি অত্যন্ত ভাল এবং চমৎকার।

এর আগে ভারতীয় গণমাধ্যমকে ইন্দ্রাণী জানিয়েছিলেন, নিউ আলিপুর ট্র্যাঙ্গুলার পার্কে নিউ আলিপুর অ্যাসোসিয়েশনের পুজো তার প্রিয় পুজো। সেখানেই তার প্রথম মঞ্চে নাটক করা, প্রথম নাচ করা, প্রথম প্রেমে পড়া, প্রথম শাড়ি পড়া, প্রথম ভোগ আর নাড়ু বিতরণ, সেখানেই প্রথম সিঁদুরখেলা। সে পুজোয় মাইকে অ্যানাউন্সমেন্ট ও ধুনুচি নাচও করেন তিনি। নিউ আলিপুর অ্যাসোসিয়েশনের মায়ের মুখ দেখলে তবেই যেন তার পুজো কমপ্লিট মনে হয়।

প্রসঙ্গত, কলকাতার বাংলা ছবির এক সময়ের সু-অভিনেত্রী ইন্দ্রাণী হালদার। যদিও পরবর্তীতে সফল টিভি অভিনেত্রী হিসেবেই দর্শক তাকে পেয়েছেন। বর্তমানে সিরিয়ালে অভিনয় নিয়েই ব্যস্ত তিনি। একটা সময় হিন্দি সিরিয়ালেও নিজের অভিনয় প্রতিভার স্বাক্ষর রেখেছেন ইন্দ্রাণী।

https://fb.watch/8ytm7xAEhk/

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

এনএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS