Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮

অজ্ঞান করে অভিনেত্রী পরী পাসওয়ানের পর্ন ভিডিও করা হয়

পর্ণকাণ্ডে বড়সড় মোড়। ড্রিংকসে মাদক মিশিয়ে অজ্ঞান করে পর্ন ভিডিও শ্যুটের অভিযোগ আনলেন প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া ইউনিভার্স! এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ এনেছেন প্রাক্তন মিস ইন্ডিয়া-ইউনিভার্স পরী পাসওয়ান।

অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রা গ্রেপ্তার হওয়ার পর থেকেই বেরিয়ে আসছে এই সংশ্লিষ্ট অভিযুক্ত ও ভুক্তভোগীদের নাম। এবার সেই তালিকায় যুক্ত হলেন পরী পাসওয়ান।

তিনি অভিযোগ করেছেন, বলিউডে কাজ করতে গিয়ে প্রতারিত হয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘এক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের অফিসে ডাকা হয়েছিল আমাকে। সেখানে কোমল পানীয়র সঙ্গে মাদক মিশিয়ে খাওয়ানো হয়। এরপর আমি অজ্ঞান হয়ে পড়ি। সেই অজ্ঞান অবস্থাতেই আমার পর্ন ভিডিও ধারন করা হয়। এবং সেটা ছড়িয়ে দেওয়া হয় অন্তর্জালে।’

তিনি জানান, এ ঘটনার পর মুম্বাইয়ের একটি থানায় অভিযোগও দায়ের করেছিলেন। কিন্তু তাতে কোনও ফল হয়নি।

ভারতের ধনবাদের বাসিন্দা পরী পাসওয়ান। গ্ল্যামার দুনিয়ায় ক্যারিয়ার গড়তে মুম্বাই পাড়ি জমিয়েছিলেন। ২০১৯ সালে তিনি মিস ইউনিভার্স ইন্ডিয়া খেতাব পেয়েছিলেন। এরপর নীরাজ পাসওয়ানের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন পরী। কিন্তু কিছু দিন যেতে না যেতেই শুরু হয় দাম্পত্য কলহ। শ্বশুরবাড়ির বিরুদ্ধে গার্হস্থ্য হিংসার অভিযোগ দায়ের করেন পরী। তার অভিযোগের ভিত্তিতে স্বামী নীরাজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ ঘটনার পর নীরাজের পরিবার আসল সত্য প্রকাশ্যে আনেন। তারা জানান, পরী আগেও দুটি বিয়ে করেছেন। তার ১২ বছর বয়সী একটি সন্তানও রয়েছে। এমনকি পর্ন ভিডিওতে কাজ করে আয় করেন বলেও জানায় নীরাজের পরিবার। এসব অভিযোগের পর পরী মুখ খোলেন এবং পর্ন ভিডিও প্রসঙ্গে তার অভিজ্ঞতার কথা জানান।

প্রসঙ্গত, গেল ১৯ জুলাই রাজ কুন্দ্রাকে পর্ন ভিডিও বানানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। বর্তমানে তিনি কারাগারে আছেন। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS