logo
  • ঢাকা শনিবার, ১৭ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

ভালো না লাগায় ছেড়ে দিয়েছি: শ্রাবন্তী

ভালো না লাগায় ছেড়ে দিয়েছি: শ্রাবন্তী
ইপসিতা শবনম শ্রাবন্তী।

টেলিভিশন মিডিয়ার সাড়া জাগানো মডেল-অভিনেত্রী ইপসিতা শবনম শ্রাবন্তী। নাটক ও বিজ্ঞাপনে ব্যাপক চাহিদাসম্পন্ন ছিলেন তিনি। ‘রং নাম্বার’সিনেমায় অভিনয় করে চলচ্চিত্রেও করেছিলেন বাজিমাৎ। ক্যারিয়ারে জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় মিডিয়া থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে নেন তিনি। বর্তমানে দুই মেয়ে রাবিয়া আলম ও আরিশা আলমকে নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন জনপ্রিয় এই পর্দা মুখ। সম্প্রতি মেয়েদের সঙ্গে নিয়ে দেশে ফিরেছেন তিনি। আরটিভি অনলাইনের সঙ্গে আলাপনে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বললেন শ্রাবন্তী। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন নিয়াজ শুভ

বাংলাদেশে কবে এসেছেন?

শ্রাবন্তী: গত ১৯ ফেব্রুয়ারি। দুই মেয়েকে নিয়ে খুব কম সময়ের জন্যই এসেছি।

কেমন সময় কাটছে?

শ্রাবন্তী: খুব ভালো, দেশে এসে পুরোনো বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। অনেক বছর পর বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছি। বেশ ভালো লাগছে।

মায়ের শূন্যতা কতটা অনুভব করছেন?

শ্রাবন্তী: বলার ভাষা নেই। মায়ের শূন্যতা তো অন্য কিছু দিয়ে পূরণ করা সম্ভব না। প্রতিমুহূর্তে তার অনুপস্থিতি টের পাচ্ছি।

সন্তানদের সঙ্গে কিভাবে সময় কাটে?

শ্রাবন্তী: আমি দীর্ঘদিন ধরেই আমেরিকাতে বসবাস করি। সেখানে আমরা তিনজন ছাড়া তো আর কেউ নেই। তাদের ঘিরেই আমার সময় কাটে।

আরও পড়ুন...

ছোট পোশাক পরায় অভিনেত্রীকে চড় (ভিডিও)

প্রবাসে একজন সিঙ্গেল মাদারের চ্যালেঞ্জ কতটুকু?

শ্রাবন্তী: সবকিছু একা করতে হয়। আমি ওদের মা আমিই বাবা। তাদের দেখাশোনা, পড়াশোনা নিয়ে আমাকে ব্যস্ত থাকতে হয়। ওয়ালমার্টে কাজ নিয়েছিলাম, কিন্তু ভালো না লাগায় ছেড়ে দিয়েছি। মেডিকেল সহকারীর স্বল্পমেয়াদী একটি কোর্স শেষ করলাম। করোনা গেলে কাজে যোগ দেওয়ার ইচ্ছা আছে।

সন্তানদের সঙ্গে ব্যক্তি শ্রাবন্তীর সম্পর্ক কেমন?

শ্রাবন্তী: একজন মায়ের সঙ্গে তার সন্তানদের যেমন সম্পর্ক হওয়া উচিত আমার সঙ্গেও তেমন। আমি সন্তানদের সঙ্গে তাদের মতো করেই মিশি।

নতুন জীবনসঙ্গী আসার সম্ভাবনা আছে কি?

শ্রাবন্তী: কেন? কিসের জন্য? না...না...। সন্তানদের নিয়েই বেশ সুখে আছি, নতুন করে জীবনসঙ্গী নিয়ে ভাবার দরকার নেই।

আরও পড়ুন...

নিষিদ্ধ সিনেমা মেকআপ'র ট্রেলার প্রকাশ (ভিডিও)

পুরোনো সহকর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ হয়?

শ্রাবন্তী: হ্যাঁ, ফোনে-ম্যাসেঞ্জারে কথা হয়। ফোনে কথা বলা আর চোখের দেখার অনুভূতি এক নয়। এবার দেশে এসে সবাইকে কাছে পেয়ে বেশ ভালো লেগেছে। প্রতিটা মুহূর্ত বেশ আনন্দে কাটছে।

আগের দিনগুলো কতটা মিস করেন?

শ্রাবন্তী: যখন কারো নাটক দেখি তখন মনে হয়, ইশ যদি এখন কাজ করতে পারতাম। তবে আহামরি মিস করা হয় না। বাচ্চাদের নিয়েই ব্যস্ত থাকি। মাঝে কিছু কাজের অফার পেয়েছিলাম কিন্তু করা হয়নি। আমি এখন কাজ করতে প্রস্তুত না। এছাড়া এবার গেলে আবার কবে দেশে আসবো সেটাই তো জানি না।

আরও পড়ুন...

দেবের জবাব

যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে যাবেন কবে?

শ্রাবন্তী: চলে যাবো। আগামী সপ্তাহের টিকিট করা আছে।

ভক্তদের উদ্দেশ্যে কিছু বলুন...

শ্রাবন্তী: সবার জন্য ভালোবাসা থাকবে। সবাই যেন আমার জন্য দোয়া করে। এখন যে পরিস্থিতিতে আছি সেটা যাতে মোকাবিলা করে সুন্দরভাবে থাকতে পারি। সবাই ভালো থাকুক এই দোয়া করি।

আরও পড়ুন...

অনন্তের গোঁফ নিয়ে হাসাহাসি

এম

RTV Drama
RTVPLUS