logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ৪ মাঘ ১৪২৭

আরটিভি নিউজ

  ২৫ ডিসেম্বর ২০২০, ২৩:৫৯
আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর ২০২০, ২২:০৮

১৬তম বর্ষে পদার্পণ করলো আরটিভি (ভিডিও)

RTV entered its 18th year
১৬তম বর্ষে পদার্পণ করলো আরটিভি
১৫ বছর অতিক্রম করে আজ শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) ১৬তম বর্ষে পদার্পণ করেছে দেশের জনপ্রিয় সাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল আরটিভি। ‘আজ এবং আগামী’র স্লোগান নিয়ে ২০০৫ সালের ২৬ ডিসেম্বর দেশের পঞ্চম বেসরকারি টেলিভিশন হিসেবে যাত্রা শুরু করে গণমানুষের চ্যানেলটি। দীর্ঘ পথপরিক্রমায় আরটিভি দর্শক-শ্রোতাদের ভালোলাগাকে প্রাধান্য দিয়ে তার সংবাদ ও অনুষ্ঠানকে সাজিয়েছে। বিপরীতে পেয়েছে দর্শকদের ভালোবাসা। 

দর্শকের চাহিদা পূরণের লক্ষ্য নিয়ে কেবল সামনে এগিয়ে গেছে চ্যানেলটি। নতুন নতুন অনুষ্ঠান, নাটক, টকশো, রিয়েলিটি শো, অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান আর ভিন্নধারায় সংবাদ দিয়ে কয়েকবছরে দর্শকপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসে আরটিভি।

আরটিভি সংবাদই প্রথম রেলে নিয়োগ কেলেঙ্কারি ফাঁস করে। তৎকালীন মন্ত্রীর এপিএস ওমর ফারুকের গাড়িচালকের সাক্ষাৎকারে বেরিয়ে আসে থলের ‘কালো বেড়াল’। পদত্যাগে বাধ্য হন তৎকালীন মন্ত্রী। তবে, ২০০৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি আগুনে ছন্দপতন ঘটে। ২০১৪-তে আরও একবার বিপর্যয়ে পড়লেও কখনও লক্ষ্যচ্যুত হয়নি দর্শকপ্রিয় চ্যানেলটি। 

‘গোলটেবিল’, ‘কেমন বাংলাদেশ চাই, ‘আজ পত্রিকায়’, এর মতো টকশো, আরটিভির অন্যতম জনপ্রিয় আলোচনা অনুষ্ঠান ছাড়াও ‘স্টার অ্যাওয়ার্ড’, ‘আলোকিত নারী পদক’ এর মতো অনুষ্ঠান আরটিভিকে নিয়ে গেছে অনন্য উচ্চতায়। ইসলামিক ট্যালেন্ট হান্ট খুঁজে নেওয়ার প্ল্যাটফর্মও করেছে চ্যানেলটি। ঈদসহ বিভিন্ন দিনকে ঘিরে প্রচার করা হয় জনপ্রিয় ও বৈচিত্র্যপূর্ণ নাটক। 

সাফল্যের পাশাপাশি চ্যালেঞ্জও কম নয়। কোভিড মহামারীতে সারা দুনিয়ার মানুষ যখন ঘরবন্দী, তখনও থেমে ছিলেন না আরটিভির কর্মীরা। জীবনের মায়া তুচ্ছ করে দর্শকদের চাহিদা পূরণে ছুটে বেড়িয়েছেন সারাদেশে। 

করোনা সংক্রমণের কঠিন দিনগুলোতে নিজেদেরকে সুরক্ষিত রাখতে কয়েকটি দলে ভাগ হয়ে অফিসে ও ঘরে বসে কাজ করে আরটিভির পর্দাকে সচল রেখেছেন কর্মীরা। করোনার ঘরবন্দী সময়ে মানুষের গান চর্চার দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে আরটিভি আয়োজন করে ‘বেঙ্গল সিমেন্ট বাংলার গায়েন’নামে নতুন রিয়েলিটি শো।  নিত্য-নতুন প্রত্যয়ে ঝলমলে আগামীর জন্য আজকের হয়ে জেগে আছে আরটিভি।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, শুরুতেই আমি চ্যানেলটির সকল দর্শক, বিজ্ঞাপনদাতা, কলাকুশলী ও ক্যাবল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে অভিনন্দন জানাই। সকলের সম্মিলিত চেষ্টায় আমরা ১৫ বছর অতিক্রম করে ১৬তম বর্ষে পদার্পণ করতে পেরেছি। আমরা সবসময় দর্শকদের পছন্দের প্রতি যত্নশীল। ২৫ থেকে ৩১ ডিসেম্বর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং নতুন বছরকে কেন্দ্র করে আমরা সপ্তাহব্যাপী বিশেষ আয়োজন রেখেছি। নতুন বছরের চমক হিসেবে থাকবে বউ শাশুড়ির টক মিষ্টি ঝাল সম্পর্ক নিয়ে ‘বউ কথা কও’, ধারাবাহিক নাটক ‘অফ দ্য রেকর্ড’, ‘টুইন ভিলেজ’সহ একাধিক আয়োজন। আরটিভি দর্শকদের একটি জীবন যাপনের সহযোগী চ্যানেলে পরিণত হয়েছে। নাটকে আমরা সবসময় নতুনত্বকে প্রাধান্য দিয়ে যাচ্ছি। মিউজিক স্টেশন, ফোক স্টেশন, ফোক স্টুডিও, বাংলার গায়েনসহ একাধিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গানের প্রতি আমরা বিশেষ যত্ন বজায় রাখছি। এতে যেমন নতুন নতুন শিল্পী তৈরি হচ্ছে তেমনি দর্শকরাও তাদের বিনোদন পাচ্ছেন। সিনেমাসহ বিনোদনের পাশাপাশি সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সমানভাবে কাজ করে যাচ্ছি। সমগ্র বিশ্বে যখন করোনার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়লো তখন আমরা সিদ্ধান্ত নিলাম, সাধারণ জনগণকে সচেতন করতে হবে। করোনা প্রতিরোধের পদ্ধতিগুলো জানাতে হবে। চিকিৎসা সম্পর্কে জানাতে হবে। তখন আমরা শুরু করলাম ‘করোনা হেল্প লাইন’, ‘এই মুহূর্তের বাংলাদেশ’ নামে সম্পূর্ণ নতুন দুটি চিকিৎসা ও পরামর্শমূলক অনুষ্ঠান। নিয়মিত অনুষ্ঠানগুলোতেও সাধারণ মানুষের সচেতনতা, চিকিৎসা ও করণীয় বিষয়কে গুরুত্ব দিতে শুরু করলাম। দর্শকের প্রয়োজনে আমরা তাদের পাশে থাকতে পরেছি বলেই দর্শকরাও আমাদের পাশে থেকেছেন। আরটিভি দেখেছেন। আমি বিশ্বাস করি, সামনের দিনগুলোতেও দর্শকরা আমাদের পাশে থাকবে।
জিএ/পি


 

RTV Drama
RTVPLUS