রেখার স্বামীর আত্মহত্যা, যা হজম করতে হয়েছিল তাকে 

প্রকাশ | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৩৮ | আপডেট: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:০১

বিনোদন ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
রেখা

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকে তার সাবেক প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী অনেকটা বিদ্বেষের মুখে। তেমনই এক সময় স্বামীর আত্মহত্যায় অভিনেত্রী রেখাকেও বিভিন্ন তির্যক কথা। শুধু রেখার শ্বশুরবাড়ির দিক থেকে নয়, ইন্ডাস্ট্রির তারকারাও তাকে দোষারোপ করেছিলেন।

ব্যবসায়ী মুকেশ আগারওয়ালের সঙ্গে বিয়ে করেছিলেন রেখা। রেখার বয়স তখন ৩০। তার ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেন মুকেশ৷ শুরু হয় রেখার বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগ। স্বামীর মৃত্যুর পর  বিভিন্ন সময় অসম্মানিত হয়েছিলেন রেখা। 

অভিনেতা অনুপম খের, পরিচালক সুভাষ ঘাইয়ের মতো তারকারা অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছিলেন।

১৯৯০ সালের ৪ মার্চ রেখা-মুকেশের বিয়ে হয়েছিল। শিল্পপতি ছিলেন মুকেশ। তার জীবনে তেমন কোনও ঝড়ঝাপ্টা ছিল না বলেই জানতেন তার ঘনিষ্ঠরা।

 

বিয়ের পর মুকেশের ভয়াবহ মানসিক অবসাদের কথা জানতে পেরেছিলেন রেখা। তবে মুকেশ যে আত্মহত্যা করবেন টা বুঝতে পারেননি তিনি। মুকেশ কিন্তু তার সুইসাইড নোটে লিখেছিলেন আমার মৃত্যুর জন্য কাউকে যেন দায়ী করা না হয়।
রেখার শ্বশুরবাড়ির অভিযোগ ছিল, আগরওয়াল পরিবারের সম্পত্তি হাতাতে এমন করেছে রেখা। 

তখন পরিচালক সুভাষ ঘাই বলেছিলেন, রেখার জন্য ইন্ডাস্ট্রির মুখে এমন কালো দাগ পড়ল, যা মেটানো মুশকিল। কোনও ভদ্র পরিবার নায়িকাদের সঙ্গে ছেলেদের বিয়ে দিতে দুবার ভাববেন৷ এমনকি কোনও দক্ষ ও শান্তিপ্রিয় পরিচালকও রেখার সঙ্গে কাজ করার আগে ভাববেন!
অভিনেতা অনুপম খের বলেছিলেন, রেখার ভাবমূর্তি বদলে এখন ন্যাশনাল ভ্যাম্পের স্বীকৃতি পেয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে এবং কাজের দিক থেকে এটা খুবই খারাপ এবং তার সঙ্গে কীভাবে মুখোমুখি হব? 

পাশাপাশি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমেও নিয়মিত রেখার বদনাম করা হতো। সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে যেভাবে রিয়াকে কাঠগোড়ায় তোলা হয়েছে, রেখাকেও তেমন ভয়ানক সময়ের মধ্যে দিয়ে যেতে হয় স্বামীর আত্মহত্যার পর।

সূত্র- নিউজ ১৮ বাংলা। 

জিএ