ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনে ভোট শনিবার (ভিডিও)

প্রকাশ | ১৬ অক্টোবর ২০২০, ১৯:১৫ | আপডেট: ১৬ অক্টোবর ২০২০, ২৩:৩০

আরটিভি নিউজ
নির্বাচন ভবন

ঢাকা-৫ ও নওগাঁ-৬ আসনের উপনির্বাচন আগামীকাল শনিবার (১৭ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলবে।

উপ-নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তারা বলেছেন, এ দুই আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ হবে। প্রতিটি ভোটকক্ষে একটি করে ইভিএম থাকছে; থাকবে কারিগরি দলও। সেই সঙ্গে যে কোনো ধরনের ত্রুটি মোকাবেলায় অতিরিক্ত ইভিএমও প্রস্তুত রাখা হয়েছে। 

নির্বাচনের আগের দিনেও স্থানীয়দের মনে নির্বাচন নিয়ে কোনো কৌতূহল নেই। পুরোনা রীতি চোখে পড়ছে না। তবে নির্বাচন কমিশনের পুরোনা রীতি আগের মতোই রয়ে গেছে। নির্বাচনী এলাকায় মোটরসাইকেলসহ বেশকিছু যানবাহন তিন দিনের জন্য চলাচলে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। যদিও নির্বাচন কমিশনের এই নিয়মও নির্বাচনী এলাকায় বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

নির্বাচনী মাঠে উৎসবের আমেজ নেই। শুনশান নীরবতা বিরাজ করছে। ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকা মাতুয়াইলের স্থায়ী বাসিন্দা সোহেল চৌধুরী। মতিঝিলে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করেন। সকালে অফিসে যান, বাসায় ফেরেন সন্ধ্যায়। আগামীকাল শনিবার উপনির্বাচন সম্পর্কে কিছুই জানেন না তিনি। তার মতো অনেকেই উপ-নির্বাচন সম্পর্কে জানেন না।

সোহেল চৌধুরী বলেন, নির্বাচন হলেও ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী জয়ী হবেন আবার নির্বাচন না হলেও ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা এলাকায় রাজত্ব করবেন। এই নির্বাচন দেয়া হচ্ছে শুধু নিয়মতান্ত্রিকতা রক্ষা করতে। সেজন্য নির্বাচন কবে হবে সেটি নিয়ে কোনো খোঁজ রাখেন না তিনি। 

ঢাকা-৫ উপ-নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও ঢাকার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জি এম সাহতাব উদ্দিন বলেছেন, ভোটের আগে প্রার্থীদের কমবেশি অভিযোগ থাকেই। তবে লিখিত আকারে বড় ধরনের কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। শেষ সময়ের নির্বাচনের প্রস্তুতিমূলক কাজগুলো এগিয়ে নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচন চলাকালীন প্রার্থীদের সব ধরনের অভিযোগ আমলে নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাসও দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

ঢাকা-৫ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ ও জাতীয় পার্টির মীর আব্দুস সবুর অংশ নিয়েছেন। ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৪৮, ৪৯, ৫০, ৬০, ৬১, ৬২, ৬৩, ৬৪, ৬৫, ৬৬, ৬৭, ৬৮, ৬৯ ও ৭০ নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত ঢাকা-৫ আসন। উপ-নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র ১৮৭টি, ভোটকক্ষ ৮৬৪টি। এই আসনে ভোটার ৪,৭১,১২৯ জন।
হাবিবুর রহমান মোল্লার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এই আসনের উপ-নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আওয়ামী লীগের কাজী মনিরুল ইসলাম, বিএনপির সালাহউদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টির মীর আব্দুস সবুর, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির আরিফুর রহমান এবং বাংলাদেশ কংগ্রেসের আনছার রহমান শিকদার।

অপরদিকে নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান জানান, করোনাকালীন সময়ে যেহেতু উপনির্বাচন হচ্ছে সেহেতু সকল ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে ভোটের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা থাকবেন।

নওগাঁ-৬ আসনের উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী শেখ মো. রেজাউল ইসলাম, বিএনপির মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল এবং এনপিপির মো. খন্দকার ইন্তেখাব আলম। রাণীনগর ও আত্রাই উপজেলা নিয়ে গঠিত নওগাঁ-৬ আসন। এখানে ভোটার ৩,০৬,৭২৫ জন। ভোটকেন্দ্রে ১০৪টি, ভোটকক্ষ ৭২১টি।
এফএ/পি