এক হচ্ছে গ্রামীণফোন-রবির মূল মালিক, চিন্তায় মাহাথির

প্রকাশ | ৩০ মে ২০১৯, ১৮:৪১ | আপডেট: ৩০ মে ২০১৯, ১৯:২৮

আরটিভি অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশে গ্রামীণফোন ও রবির মূল মালিকানা নরওয়ে ভিত্তিক টেলিনর ও মালয়েশিয়ার আজিয়াটা কোম্পানি। সম্প্রতি এশিয়ার কয়েকটি দেশে কোম্পানি দুটি তাদের ব্যবসা এক করার ঘোষণা দিয়েছে।

আর এতেই চিন্তিত হয়ে পড়েছেন মালয়েশিয়ার  প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ। তবে তিনি কোম্পানির ব্যবসা নিয়ে চিন্তিত নন, তার চিন্তা এই কোম্পানিতে যারা কাজ করেন, তারা চাকরি হারাতে পারেন- তা নিয়ে।খবর স্টার অনলাইনের।

মূলত এশিয়ার টেলিকম বাজার দখলে নিতে একীভূত হওয়ার এ উদ্যোগ নিয়েছে নরওয়েভিত্তিক টেলিকম গ্রুপ টেলিনর ও মালয়েশিয়াভিত্তিক আজিয়াটা। একীভূত হওয়ার পর প্রাথমিকভাবে নতুন এ ব্যবসায়িক উদ্যোগের কার্যালয় হবে মালয়েশিয়ায়। মার্জকো নামে পরিচালিত হবে একীভূত কোম্পানির কার্যক্রম।

আর এশিয়ায় থাকা কোম্পানি দুটির যত অবকাঠামো রয়েছে, তা একসঙ্গে ব্যবহার করা হবে। এশিয়ার নয়টি দেশে প্রায় ৬০ হাজার টাওয়ার ও ৩০ কোটি গ্রাহক রয়েছে অপারেটর দুটির।

ড. মাহাথিরের কার্যালয় এ মার্জারের (একীভূতকরণ) ফলে সেদেশে অনেক মানুষ চাকরি হারাতে পারেন। এ নিয়ে তারা উদ্বেগ বলে জানিয়েছে। পরিকল্পিত এই মার্জারের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্যও চেয়েছে তার সরকার।

টেলিনরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের তৃতীয় প্রান্তিক শেষে অর্থাৎ সেপ্টেম্বর নাগাদ একীভূতকরণের বিষয়টি চূড়ান্ত হতে পারে। মার্জকোর সিংহভাগ শেয়ার থাকবে টেলিনরের হাতে। ৫৬ দশমিক ৫ শতাংশ শেয়ার নিয়ে তারা হবে নতুন কোম্পানির বড় অংশীদার। আজিয়াটার হাতে থাকবে বাকি ৪৩ দশমিক ৫ শতাংশ শেয়ার।

এশিয়ায় দুই কোম্পানির ব্যবসা একীভূত হলেও রবি বাংলাদেশে আলাদা কোম্পানি হিসেবে স্বাধীনভাবে ব্যবসা চালিয়ে যাবে বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এর নিয়ন্ত্রণ থাকবে আজিয়াটার হাতে।

এস