• ঢাকা সোমবার, ২৭ মে ২০১৯, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

বাচ্চার জন্য দুধ চুরি, চাকরি দিতে সেই বাবাকে খুঁজছে স্বপ্ন

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১২ মে ২০১৯, ১০:৩০ | আপডেট : ১২ মে ২০১৯, ১১:১১
ছবি প্রতীকী
বাচ্চার জন্য দুধ চুরি করা সেই বাবাকে চাকরি দিতে চায় সুপারশপ স্বপ্ন। এজন্য প্রতিষ্ঠানটি ওই ব্যক্তিকে খুঁজছে।

whirpool
রোববার স্বপ্নের হেড অব মার্কেটিং তানিম করিম আরটিভি অনলাইনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সূত্রে জানা যায়, রাজধানীর একজন বাবা সুপারশপ স্বপ্নের এক আউটলেট থেকে নিজের বাচ্চার জন্য দুধের কৌটা চুরি করেছিলেন। পরে আউটলেটের নিরাপত্তাকর্মীর হাতে ধরা পড়েন ওই বাবা। এরপর খিলগাঁওয়ে পুলিশের সামনে হাজির করা হয় অসহায় এ বাবাকে।

এসময় তিনি পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে নিজের অসহায়ত্বের বর্ণনা দেন। বলেন, স্যার, তিনমাস হল চাকরি নেই, বেতন নেই। ঘরে ছোট বাচ্চা, দুধ কেনার টাকা নেই।

এরপর ওই বাবার অসহায়ত্ব বুঝে তাৎক্ষণিকভাবে দুধের দাম দিয়ে দেন পুলিশ কর্মকর্তা। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। যা ভাইরাল হয়ে যায়।

বিষয়টি নজরে আসে সুপারশপ স্বপ্নের নির্বাহী পরিচালক (সিইও) সাব্বির হাসান নাসিরের। তার নির্দেশে চাকরি দেয়ার জন্য সেই অসহায় বাবাকে খুঁজছে স্বপ্ন কর্তৃপক্ষ।

স্বপ্নের হেড অব মার্কেটিং তানিম করিম আরটিভি অনলাইনকে বলেন,  আমাদের পক্ষ থেকে তার জন্য দরজা খোলা আছে। স্বপ্নের প্রধান নির্বাহী নিজের জায়গা থেকে এই উদ্যোগ নিয়েছেন। এটা আমাদের জন্য একটা মানবিক দিক।

তিনি বলেন, আমরা থানায় খোঁজ নিয়েছি- তার পরিচয় জানার চেষ্টা করেছি। কিন্তু এখনও কোনও তথ্য পাইনি। পুলিশের কাছে থাকা তার মোবাইল ফোন নম্বরটিও এখন বন্ধ।

‘মিডিয়ার মাধ্যমে এ তথ্য জানার পর তিনি (ওই বাবা) যদি সরাসরি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন, তবুও আমরা ব্যবস্থা নেবো। এখানে তার পরিচয় সম্পূর্ণভাবে গোপন রাখা হবে।’

তানিম করিম বলেন, ‘আমাদের নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসিরের নির্দেশে ওই ব্যক্তিকে চাকরি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাকে সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হবে। তার যোগ্যতা অনুযায়ী উপযুক্ত স্থানে তাকে পদায়ন করা হবে।

স্বপ্নের সিইও সাব্বির হাসান নাসির এ ব্যাপারে আরটিভি অনলাইনকে বলেন, পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার পর থেকে লোকটি আর ফোন ধরছে না। আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে বলতে চাচ্ছি, যিনিই এ কাজটি করেছেন, আমরা আপনার নাম পরিচয় প্রকাশ করবো না। হয়তো আপনি এখন লজ্জা পাচ্ছেন, লজ্জা না পেয়ে আপনি যদি আমাদের তেজগাঁও অফিসে আসেন, তাহলে আমি ইন্টারভিউয়ের মাধ্যমে একটি চাকরির ব্যবস্থা করে দেবো।

এস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়