logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

অভিতাভ রেজার ‘ঢাকা মেট্রো’র ট্রেলার প্রকাশ করলো হইচই!

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১০ এপ্রিল ২০১৯, ১৮:২২
আজ রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে আমন্ত্রিত অতিথি ও গণমাধ্যমকর্মীদের সামনে ‘ঢাকা মেট্রো’র অফিসিয়াল ট্রেলার প্রকাশ করলো হইচই।

জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক অমিতাভ রেজা চৌধুরী নির্মিত প্রথম ওয়েব সিরিজ ‘ঢাকা মেট্রো। শ্বাসরুদ্ধকর এ ওয়েব সিরিজে প্রধান চরিত্রগুলোয় অভিনয় করেছেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনয়শিল্পী অপি করিম, অভিনেতা নেভিল ফেরদৌস হাসান এবং শিশুশিল্পী শরিফুল ইসলাম।

আগামী ১১ এপ্রিল থেকে ওয়েব সিরিজটি দেখা যাবে অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম হইচই- এ। ঢাকা মেট্রোর মাধ্যমে বাংলাদেশের দৃশ্যশিল্পীকে বিশ্বব্যাপী দর্শকের কাছে পৌঁছে দেবে হইচই।

ওয়েব সিরিজটির গল্পের কেন্দ্রে রয়েছে এমন এক ব্যক্তি যে তার শহুরে জীবনের বিশৃঙ্খলা ও বিষণ্নতাকে পিছনে ফেলে পাড়ি দিচ্ছে নিজেকে নতুন করে চেনার এক নতুন সফরে।

ওয়েব সিরিজটি প্রযোজনায় রয়েছে অমিতাভ রেজা চৌধুরীর নির্মাণ প্রতিষ্ঠান হাফ স্টপ ডাউন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ওয়েব সিরিজটির প্রযোজক মেহজাবিন রেজা চৌধুরী ও মো. আসাদুজ্জামান, লেখক নাসিফ আমিন এবং ওয়েব সিরিজের অভিনয় শিল্পীদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন নেভিল ফেরদৌস হাসান, অপি করিম, শারমিন জোহা শশী, শরিফুল ইসলাম এবং মোস্তফা মনোয়ার। 

অনলাইন স্ট্রিমিং সেবা ও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম বিকাশের সাথে সাথে দেশের বিনোদন জগতে বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়েই বিনোদনের নতুন মাধ্যম হিসেবে ওয়েব কন্টেন্ট খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

এ ডিজিটাল যুগে বিনোদন এখন মানুষের হাতের মুঠোয়, যেকোনও জায়গায়, যেকোনও মুহূর্তে। বাংলাদেশি দর্শকরাও এখন বিনোদনের প্রয়োজনে দেশি-বিদেশি ওয়েব কন্টেন্টের প্রতি ঝুঁকছেন। প্রেক্ষাগৃহকেন্দ্রিক চলচ্চিত্রের বিপরীতে ওয়েব প্ল্যাটফর্মগুলো নির্মাতাদের নির্মাণের ক্ষেত্রে অনেক স্বাধীনতা দিচ্ছে, যার ফলে প্রচুর নিরীক্ষাধর্মী কাজ করারও সুযোগ পাচ্ছেন নির্মাতারা। ওয়েব প্ল্যাটফর্মে কন্টেন্টের মাধ্যমে নির্মাতা ও দর্শকের মধ্যে একধরনের সূক্ষ্ম যোগাযোগ তৈরি হয়।  

ওয়েব কন্টেন্ট ও বিনোদন জগতে ‘ঢাকা মেট্রো’ সম্পূর্ণ এক নতুন মাত্রা যোগ করবে। সম্পর্ক, বিচ্ছেদ, স্মৃতি খুঁজে ফেরা, মুক্তি, বন্দীজীবন, আত্মনিয়ন্ত্রণ, অবসাদ, বিভ্রম ও অন্তিমযাত্রা এ নয়টি বিষয় নিয়ে প্রথাগত ধারণার বাইরে নির্মিত এ ওয়েব সিরিজ । 

আমাদের নাগরিক জীবনে বিচ্ছেদ ও একাকিত্বের বিষয়টি রূপকাশ্রয়ী কিন্তু বস্তুনিষ্ঠ গল্পের মাধ্যমে তুলে ধরতে চেয়েছেন নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী। ওয়েব প্ল্যাটফর্মের সম্ভাবনাকে সুযোগ হিসেবে কাজে লাগিয়ে ব্যঙ্গাত্মক ভঙ্গিতে রূঢ় চোখে আমাদের সমসাময়িক জীবনকে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন নির্মাতা। এই ওয়েব সিরিজে নিজস্ব ধারার বাইরের একজন অমিতাভ রেজা চৌধুরীকে আবিষ্কার করার সুযোগ পাবে দর্শকরা। চিত্রনাট্যের সঙ্গে মিল রেখে কুয়াশাচ্ছন্ন শীতে বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে ওয়েব সিরিজটির শুটিং হয়েছে। যার ফলে ওয়েবসিরিজটির পরাবাস্তবতার গল্পে ফুটে উঠেছে শীতের বিষণ্নতা।

এ ওয়েব সিরিজ নিয়ে নির্মাতা অমিতাভ রেজা চৌধুরী বলেন, ওয়েব সিরিজের ধারণাটি আমাদের মিডিয়া জগতে নতুন এক দিগন্ত উন্মোচন করেছে। এ কাজটি করে আমি আনন্দিত। আমি নিশ্চিত, যে আমাদের কঠোর পরিশ্রমের ফল দর্শকদের মন ছুঁয়ে যাবে। ডার্ক কমেডি ও থ্রিলারের সমন্বয় দর্শকদের একটি ভিন্ন স্বাদ দিবে।

হইচই বাংলাদেশের বিজনেস লিড সাকিব আর খান বলেন, ‘ওয়েবসিরিজটি শুধু দেখা যাবে বাংলা বিনোদনের সবচেয়ে বড় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম হইচইতে। বাংলাদেশের প্রতিভা সারা পৃথিবীতেই স্বীকৃতি পেয়েছে এবং বাংলাদেশের কন্টেন্ট সারা পৃথিবীর কাছে পৌঁছে দেয়ার জন্য এটি আমাদের প্রথম প্রচেষ্টা। এ অ্যাপ নিশ্চিত করবে যেনো আমাদের কন্টেন্ট সারাবিশ্বের বাঙালির কাছে পৌঁছে যায় এবং তারা বাংলাদেশে তাদের প্রিয় নির্মাতা ও কলাকুশলীদের কাজ দেখতে পারে। সামনের দিনগুলোতে হইচই বাংলাদেশে নির্মিত আরও কন্টেন্ট নিয়ে আসছে যা শীঘ্রই এ স্ট্রিমিং অ্যাপে পাওয়া যাবে। আমরা অত্যন্ত আনন্দের সাথে জানাতে চাই, এখন থেকে ক্রেডিট কার্ড ও ডেবিট কার্ড ছাড়াও অন্যান্য লোকাল ওয়ালেটের মাধ্যমে বাংলাদেশি টাকায় হইচইয়ে সাবস্ক্রাইব করা যাবে। 

এস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়