• ঢাকা সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯, ৩ আষাঢ় ১৪২৬

ঘুরে দাঁড়িয়েছে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের ডলার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
|  ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২৪ | আপডেট : ০৭ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:২৬
ছবি: রয়টার্স

অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির নিম্নগামীতায় বিশ্বের নীতি-নির্ধারকদের দুশ্চিন্তার মধ্যে সোমবার ঘুরে দাঁড়িয়েছে দেশদুটির ডলার। শুক্রবারের তিনটি ঘটনায় এমনটি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রথমত, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে একটি নতুন বাণিজ্য আলোচনার ঘোষণা চীনের। দ্বিতীয়ত, চীনের আগ্রাসী মুদ্রানীতি। তৃতীয়ত, সুদের হার বাড়াতে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেমের চেয়ারপারসন জেরোমি পাওয়েলের ধৈর্যধারণ ও নমনীয়তা।

এতে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে বৈশ্বিক আদান-প্রদানের প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি বেশ ভালোভাবেই প্রমাণিত হয়েছে। এছাড়া সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের ডলারের বিপরীতে অস্ট্রেলিয়ার ডলারের মান ০.৭১২৭ বেড়ে যায়, যা গত বৃহস্পতিবার ছিল ০.৬৭১৫। দেশটিতে গত এক দশকে এটিই ছিল সর্বনিম্ন রেকর্ড।

২০১৯ সালের শুরুতে ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বেশকিছু বিনিয়োগকারী তাদের বিনিয়োগ তুলে নেয়ায় অর্থনৈতিক মন্দা আশঙ্কা তৈরি হয়। এর প্রভাব পড়তে থাকে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের ডলারের ওপর। চীন-যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য যুদ্ধের ফলে বিশ্ব অর্থনীতিতে অনিশ্চয়তা আরও বেড়ে যায়।

এদিকে মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের এক ডলারের বিপরীতে নিউজিল্যান্ডের ডলারের মান হয় ০.৬৭৩৮, যা খুব একটা নিচে নামেনি। গত শুক্রবারে যুক্তরাষ্ট্রের এক ডলারের বিপরীতে নিউজিল্যান্ডের ডলারের মান ছিল ০.৬৭৫১।

কে/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়