Mir cement
logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ৯ শ্রাবণ ১৪২৮

কবর থেকে মর্গে আইনজীবীর লাশ

মৃত আইনজীবী আনোয়ার হোসেন

হত্যার রহস্য উদঘাটনের জন্য সিলেটে আইনজীবী আনোয়ার হোসেনের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে বুধবার (১৬ জুন) জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মেজবাহ উদ্দিনের উপস্থিতিতে মরদেহ উত্তোলন করা হয়।

আনোয়ারের মরদেহ উত্তোলনের পর ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের পর অ্যাডভোকেট আনোয়ারের লাশ পুনরায় দাফন করা হবে বলে জানান মেজবাহ উদ্দিন।

সিলেট সদর উপজেলার শিবের বাজারের দীঘিরপাড় গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে গত ১ মে অ্যাডভোকেট আনোয়ারের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়। মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, সেদিন আনোয়ারের স্ত্রী শিপা বেগম তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে ফোন করে স্বামীর মৃত্যুর খবর দেন। স্বাভাবিক মৃত্যু মনে করে পরিবারের লোকজন ওইদিন রাতেই আনোয়ারের লাশ দাফন করে। এর ১০ দিন পর শাহজাহান মাহি নামে এক যুবককে বিয়ে করেন, যে কিনা শিপার পরকীয়া প্রেমিক। বিয়ের পর শিপা আনোয়ারের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। শিপার আচরণে সন্দেহ হলে আনোয়ারের ভাই মনোয়ার হোসেন হত্যা মামলা করেন। মামলায় শিপা বেগম ছাড়াও আনোয়ারের শ্বাশুড়ি রেশনা বেগম, শিপা বেগমের বর্তমান স্বামী শাহজাহান চৌধুরীসহ আটজনের নাম উলে­খ করা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেপ্তার শিপা বেগম পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। পরে সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেটের এমএম-২ দ্বিতীয় আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে পরকীয়া প্রেমে অন্ধ হয়ে নিজ স্বামীকে ঘুমের ট্যাবলেট খাইয়ে হত্যার কথা স্বীকার করে খুনের বর্ণনা দেন শিপা বেগম।

এফএ

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS