Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১১ শ্রাবণ ১৪২৮

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি, আরটিভি নিউজ

  ২৮ মে ২০২১, ১১:০৪
আপডেট : ২৮ মে ২০২১, ১১:০৯

চাচাত ভাইকে ফাঁসানোর জন্য নিজেই যেভাবে হ'ত্যা করলো মাকে

মোহাম্মদ আলী

হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলার মক্রমপুর ইউনিয়নের নিশ্চিন্তপুর গ্রামে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে ৬৫ বছরের বৃদ্ধা গোলাপ চান বিবিকে টেটা বিদ্ধ করে হত্যার ঘটনার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। প্রতিপক্ষকে হত্যা মামলা দিয়ে ফাঁসানোর জন্য বৃদ্ধার ছেলে মোহাম্মদ আলী এই হত্যা করেছে বলে আদালতে ১৬৪ ধারার জবানবন্দিতে দায় স্বীকার করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তৌহিদুল ইসলামের আদালতে সে এই স্বীকারোক্তি দেয়।

কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. জিয়াউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বলেন, আদালতে মোহাম্মদ আলী জানান তার চাচাত ভাইয়ের সঙ্গে দীর্ঘ দিন ধরে বাড়ির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলছিল। বিরোধ নিষ্পত্তি করতে গত বুধবার সকালে বাড়িতে সালিশি বৈঠক শুরু হয়। সালিশে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে ধাওয়া পাল্টা হয়। এ সময় চাচাত ভাই কাদিরকে ফাঁসাতে রাগের মাথায় টেটা দিয়ে মাকে আঘাত করে মোহাম্মদ আলী। কিছুক্ষণ পরই তার মা মারা যায়। এরপর সে তার মাকে কাদির গং হত্যা করেছে বলে চিৎকার শুরু করে। এ ঘটনায় গ্রেপ্তার এড়াতে কাদির মিয়া ও তার লোকজন বাড়ি থেকে চলে যায়।

হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলী জানান, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে আরও কারা জড়িত সেই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য পুলিশ তদন্ত করছেন। যেহেতু সংঘর্ষ হয়েছে সেহেতু এ ঘটনায় আরও জড়িত থাকতে পারে। দায় স্বীকার করার পর মোহাম্মদ আলীকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

এসআর/

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS